রবিবার ২৯ মে ২০২২, ১৫ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

মেদ ঝরানো থেকে শর্করার নিয়ন্ত্রণ, দুধের চায়ের চেয়ে বেশি উপকারী লবঙ্গ চা

প্রকাশিত : 06:39 AM, 13 April 2021 Tuesday

গণঅধিকার নিউজ ডেস্কঃ

মাদের বাড়ির বেশিরভাগ মানুষ সকালে উঠে দুধ বা লিকার চা খেতে পছন্দ করি। তবে আপনি যদি নিয়মিত চায়ের পরিবর্তে লবঙ্গ চা পান করেন তবে তার স্বাস্থ্যগুণ আরও বেশি হয়। হ্যাঁ, আমাদের রান্নাঘরেই এই অনেকগুলি মশলা রয়েছে যার মধ্যে লবঙ্গগুলির নিজস্ব গুরুত্ব রয়েছে।

লবঙ্গ সেবন ওজন হ্রাস করতে সাহায্য করে। এতে উপস্থিত অ্যান্টি-ইনফ্লেমেটরি এবং অ্যান্টি-ব্যাকটেরিয়াল গুণ হজম শক্তি উন্নত করতে সহায়তা করে। এ ছাড়া অন্যান্য রোগ থেকে মুক্তি দিতে সহায়তা করে। লবঙ্গগুলিতে ভিটামিন E, ভিটামিন C, ফোলেট, রাইবোফ্লাভিন, ভিটামিন A, থায়ামিন এবং ভিটামিন D এর মতো প্রয়োজনীয় ভিটামিন থাকে। আপনি চাইলে তরকারি তৈরি করার সময় লবঙ্গ ব্যবহার করতে পারেন বা চা বানানোর সময় এতে লবঙ্গ গুঁড়ো যুক্ত করে উপকার পাবেন।

লবঙ্গ চা কীভাবে তৈরি করবেন

উপাদান
২ কাপ জল
৪-৫টা লবঙ্গ
১/২ ইঞ্চি দারুচিনি

১/২ ইঞ্চি আদা
গুড়
লেবুর রস

পদ্ধতি
একটি প্যানে জল দিয়ে ফুটতে দিন।
গ্যাস বন্ধ করে জলে প্রায় ৪-৫টি লবঙ্গ, গ্রেটেড আদা এবং দারচিনি দিন। এর পর ১৫ থেকে ২০ মিনিটের জন্য ফুটতে দিন।
এক কাপে জলে ১ চা চামচ মধু এবং ১ টেবিল চামচ লেবুর রস যোগ করুন।

আপনার মশলাদার ভেষজ চা উপভোগ করুন।

এটি আপনাকে ওজন কমাতে সহায়তা করতে পারে
এই মশলাদার চা আপনার হজমে উন্নতি করতে পারে। চায়ে ব্যবহৃত লবঙ্গ এবং মশলায় ব্যবহৃত যৌগগুলি আপনার হজম প্রক্রিয়াটিকে উন্নত করতে পারে, যা আপনাকে ওজন কমাতে সহায়তা করতে পারে। মশলা আপনার বিপাকের হারকে উন্নত করতেও পরিচিত, যা ফ্যাট বার্ন করতে সহায়তা করে।

ত্বকের সংক্রমণ থেকে মুক্তি পেতে

এটি আপনাকে অনেক ধরণের ত্বকের সংক্রমণ থেকে মুক্তি দেবে। লবঙ্গ চায়ে এন্টিসেপটিক বৈশিষ্ট্য রয়েছে যা শরীর থেকে টক্সিন সরিয়ে দেয়। যদি এটি কোনও ক্ষতে প্রয়োগ করা হয় তবে তা দ্রুত নিরাময় করে। এটি ছত্রাকের সংক্রমণ, দাদ, কুঁচকি থেকেও মুক্তি দেয়।

মাড়ি ও দাঁতের ব্যথা উপশম করতে সাহায্য করে
লবঙ্গে অ্যান্টি-ইনফ্ল্যামেটরি যৌগ রয়েছে বলে জানা যায়, যা দাঁতে ব্যথা এবং জিঞ্জিভাইটিস থেকে মুক্তি দিতে সহায়তা করে। ভেষজ চা আপনার মুখ থেকে ব্যাকটিরিয়া অপসারণ করতে সাহায্য করে, দাঁতের সমস্যা থেকে দ্রুত মুক্তি দেয়।

শেয়ার করে সঙ্গে থাকুন, আপনার অশুভ মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়। আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক গণঅধিকার'কে জানাতে ই-মেইল করুন- dailyganoadhikar@gmail.com আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।

দৈনিক গণঅধিকার'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

© ২০২২ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। দৈনিক গণঅধিকার | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বে-আইনি, ডেভোলপ ও ডিজাইন: DONET IT