ঢাকা, বুধবার ২২ সেপ্টেম্বর ২০২১, ৭ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

পিআইডি এর নিয়ম অনুসারে আবেদিত

সাড়ে তিন লাখ ডলারে বিক্রি হল গান্ধীর চশমা

প্রকাশিত : 07:01 PM, 23 August 2020 Sunday

গণঅধিকার নিউজ ডেস্কঃ

ভারতের স্বাধীনতার জনক মোহনদাস করমচাঁদ গান্ধীর একজোড়া চশমা যুক্তরাজ্যের একটি নিলাম ঘরে তিন লাখ ৪০ হাজার মার্কিন ডলারে (প্রায় দুই কোটি ৮৮ লাখ ৩৬ হাজার টাকা) বিক্রি হয়েছে।

শুক্রবার রাতে ইনস্টাগ্রামে ইস্ট ব্রিস্টল অকশনসের পক্ষ থেকে লেখা হয়, ‘মাত্র চার সপ্তাহ আগেই চশমাটি আমরা আমাদের ডাকবাক্সে পেয়েছিলাম। এক ভদ্রলোক সেটি ওখানে রেখে গিয়েছিলেন; চশমাটি গান্ধী নিজে ওই ভদ্রলোকের এক আঙ্কেলকে দিয়েছিলেন।’

‘আর সেই অবিশ্বাস্য উপহারটি নিলামে তুলে অবিশ্বাস্য ফল পেয়েছি আমরা!’ অহিংস আন্দোলনের পুরোধা মহাত্মা গান্ধী ওই চশমা ১৯২০ কিংবা ১৯৩০-এর দশকে, দক্ষিণ আফ্রিকায় ব্রিটিশ পেট্রোলিয়ামে চাকরিকালে পরতেন বলে জানিয়েছে ‘অকশন হাউস’।

ধারণা করা হয়েছিল, নিলামে চশমাটির দাম ১৯ হাজার ৬৩৪ ডলারের (১৬ লাখ ৬৫ হাজার টাকার) মতো উঠবে।

এ মাসের শুরুতে নিলামকারী অ্যান্ড্র– স্টো বলেছিলেন, যে ভদ্রলোক চশমাটি তাদের দিয়ে গেছেন তিনি বলেছিলেন, ‘কাজে না লাগলে ফেলে দিয়েন!’ যারা এটির দাম ১৯ হাজার ৬৩৪ ডলারের মতো উঠবে বলে আশা করেছিলেন, তিন লাখ ৪০ হাজার ডলারে বিক্রি হওয়ার খবরে তাদের চোখ নিশ্চয়ই কপালে উঠে গেছে!

জানা গেছে, এই চশমাটি ইংল্যান্ডের এক বয়স্ক ব্যক্তির কাছ থেকে মিলেছে। তার বাবা জানিয়েছিলেন, এই চশমাটি তার কাকা ১৯১০ থেকে ১৯৩০ সালের মধ্যে দক্ষিণ আফ্রিকায় ব্রিটিশ পেট্রোলিয়ামের হয়ে কাজ করার সময় উপহার হিসেবে পেয়েছিলেন।

‘এই ব্যক্তি নিশ্চয়ই ব্রিটিশ পেট্রোলিয়ামের হয়ে দক্ষিণ আফ্রিকায় কাজ করতেন। সেখানেই তিনি এই চশমাটি উপহার পান। তবে আমার মনে এই চশমাটি তার প্রথম জীবনেরই চশমা।’

কিন্তু কীভাবে গান্ধীর ব্যবহৃত চশমা অন্য একজনের কাছে এলো?

আসলে গান্ধীজি প্রায়ই তার পুরনো বা অপ্রয়োজনীয় চশমা সেই সব মানুষকে দান করতেন যাদের সেটির প্রয়োজন আছে অথবা কোনো না কোনো সময়ে গান্ধীকে সাহায্য করেছেন। সেভাবেই হয়তো ওই ব্যক্তিকেও তিনি চশমাটি দান করেছেন।

শেয়ার করে সঙ্গে থাকুন, আপনার অশুভ মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়। আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক গণঅধিকার'কে জানাতে ই-মেইল করুন- dailyganoadhikar@gmail.com আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।

দৈনিক গণঅধিকার'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

© ২০২১ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। দৈনিক গণঅধিকার | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বে-আইনি, ডেভোলপ ও ডিজাইন: DONET IT