সোমবার ১৭ জানুয়ারি ২০২২, ৪ঠা মাঘ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

শ্রীলেখা মাসিকে কল করুন’, অভিনেতার নম্বর ফাঁস, সোশ্যাল মিডিয়ায় হুলস্থুল

প্রকাশিত : 09:42 AM, 2 May 2021 Sunday

গণঅধিকার নিউজ ডেস্কঃ

সাইবার ক্রাইম ডিপার্টমেন্টের দ্বারস্থ অভিনেতা শ্রীলেখা মিত্র। গত কয়েকদিন যাবৎ, সোশ্যাল মিডিয়ায় তারকা প্রার্থী এবং তারকা প্রচারকদের নম্বর ফাঁস করা হচ্ছিল। এবারে ফেসবুকে ফাঁস হল বাম তারকা প্রচারক শ্রীলেখা মিত্রর ফোন নম্বর। শুধু তাই নয়, কুরুচিকর মন্তব্য করা হল অভিনেতার সম্পর্কে। সুজন সেন নামের এক নেটনাগরিক প্রশ্ন ‘ওঁর রেট টা কী চলছে…একজনের সঙ্গে কতো? দুজনের সঙ্গে কতো?’ কুরুচিকর এই পোস্টটির একটি স্ক্রিনশট নিয়ে নিজের প্রোফাইলে পোস্ট করেন শ্রীলেখা। সঙ্গে ওই নেটনাগরিকের রাজনৈতিক অবস্থান নিয়েও কড়া সমালোচনা করেন শ্রীলেখা। জানান, সাইবার ক্রাইম দফতরকে ইতিমধ্যেই জানিয়েছেন তিনি।

সকালের ওই নেট নাগরিকের পোস্টে দেখা যায় লেখা রয়েছে, ‘ভাত চাই? শ্রীলেখা মাসিকে কল করুন’। তারপরেই অভিনেতার সম্পর্কে কুৎসিত কথাবার্তা লেখা হয়। শ্রীলেখা তাঁর পোস্টে ওই নেটাগরিককে ‘বোনপো’ সম্বোধন করেন। তারপর লেখেন, শুধু ভাত কেন? কোভিড সংক্রান্ত যে কোনও প্রয়োজনে তিনি তাঁর সাধ্য মত সাহায্য করবেন। পোস্টের শেষে অভিনেতা জানতে চান, ওই নেটাগরিক কোন দলের সমর্থক। শ্রীলেখা লেখেন, ‘তুমি তৃণমূল না বিজেপি? মানে বোঝার চেষ্টা করছি কার দ্বারা অনুপ্রাণিত হয়ে এই ভাষায় আমার সম্পর্কে লিখলে’? সেই পোস্টেই কলকাতা পুলিশ ও সাইবার সেলকে উল্লেখ করে পোস্টটির বিরুদ্ধে যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়ার দাবি জানান শ্রীলেখা।

সপ্তম দফার নির্বাচনের দিন নেটমাধ্যমে ফাঁস করা হয় তারকা প্রার্থীদের ফোন নম্বর। মুকুল রায়, শুভেন্দু অধিকারী, বৈশালী ডালমিয়া, রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়দের মতো রাজনীতিবিদ থেকে শুরু করে রাজ চক্রবর্তী, কাঞ্চন মল্লিক, সায়ন্তিকা বন্দ্যোপাধ্যায়, সায়নী ঘোষ, জুন মালিয়া, কৌশানী মুখোপাধ্যায়, শ্রাবন্তী, যশ, রুদ্রনীলদের নম্বর। সেদিনের পোস্টে লেখা ছিল, ‘করোনায় ভয় কিসের? আপনার পাশেই রয়েছেন মানুষের জন্য কাজ করতে চাওয়া নেতারা! মাস্ক, স্যানিটাইজার, রক্ত, অক্সিজেন, অ্যাম্বুল্যান্সের জন্য এক্ষুনি ফোন করুন…’। পরিচালক ইন্দ্রাশিস আচার্য তাঁর ওয়ালে পোস্টটি করার পর টলিউডে জোর বিতর্ক ওঠে। কাজটি বামেদের করা বলে ক্ষোভ প্রকাশ করেন তৃণমূল কংগ্রেস প্রার্থী পরিচালক রাজ চক্রবর্তী। তার উত্তরে শ্রীলেখা মিত্রও মন্তব্য করেন, ‘কেউ দুষ্টুমি করে কাজটি করেছে। তবে বুদ্ধিমত্তা আছে বলতে হবে’।

শুরু হয়ে যায় জোর বিতর্ক। দুরকমের মত নিয়ে জোর আলোচনা শুরু হয়। একদল প্রশ্ন করেন, ‘এ ভাবে ব্যক্তিগত ফোন নম্বর ফাঁস করে দিয়ে তাঁদের বিপদে ফেলা কি ঠিক’? অন্যদলের বক্তব্য, ‘এঁরা তো মানুষের জন্য কাজ করতে চেয়েছিলেন, তা হলে করোনা অতিমারির সময়ে মানুষ তাঁদের সরাসরি যোগাযোগ কর‍তে পারবেন, এতে অসুবিধা কোথায়’! উল্লেখযোগ্য, যাঁদের নম্বর প্রকাশ করা হয়েছে, তাঁরা প্রত্যেকেই বিজেপি এবং তৃণমূলের প্রার্থী। বাম দলের কারও নম্বর না থাকায় অভিযোগের তির তাঁদের দিকেই যায়। এরপর শনিবার বামেদের তারকাপ্রচারক শ্রীলেখা মিত্রের নম্বর ফাঁস করে বিতর্ক বাড়িয়ে দিলেন নেটনাগরিক।

শেয়ার করে সঙ্গে থাকুন, আপনার অশুভ মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়। আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক গণঅধিকার'কে জানাতে ই-মেইল করুন- dailyganoadhikar@gmail.com আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।

দৈনিক গণঅধিকার'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

© ২০২২ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। দৈনিক গণঅধিকার | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বে-আইনি, ডেভোলপ ও ডিজাইন: DONET IT