মঙ্গলবার ০৭ ডিসেম্বর ২০২১, ২৩শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

পিআইডি এর নিয়ম অনুসারে আবেদিত

রোহিঙ্গা জেনোসাইড মামলা মিয়ানমারের বিরুদ্ধে জোরালোভাবে নামছে কানাডা, নেদারল্যান্ডস

প্রকাশিত : 08:05 PM, 4 September 2020 Friday

গণঅধিকার নিউজ ডেস্কঃ

রোহিঙ্গা জেনোসাইড সংঘটনের দায়ে রাষ্ট্র হিসেবে মিয়ানমারের জবাবদিহি নিশ্চিত করার উদ্যোগে আরো জোরালোভাবে নামছে কানাডা ও নেদারল্যান্ডস। গতকাল বুধবার রাতে এক যৌথ বিবৃতিতে দেশ দুটির পররাষ্ট্রমন্ত্রীরা বলেছেন, তাঁদের দেশগুলো আন্তর্জাতিক ন্যায়বিচার আদালতে (ইন্টারন্যাশনাল কোর্ট অব জাস্টিস, সংক্ষেপে আইসিজে) মিয়ানমারের বিরুদ্ধে মামলায় গাম্বিয়াকে সহযোগিতা করবে। একই সঙ্গে তাঁরা জেনোসাইডবিরোধী আন্তর্জাতিক সনদে স্বাক্ষরকারী সব রাষ্ট্রকে গাম্বিয়ার প্রতি সমর্থন ও সহযোগিতা দেওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন।

কূটনৈতিক সূত্রগুলো বলছে, গত বছর মিয়ানমারের বিরুদ্ধে আইসিজেতে মামলার শুনানির প্রাক্কালে কানাডা ও নেদারল্যান্ডস গাম্বিয়ার প্রতি সমর্থন জানিয়েছিল। এবার ওই দেশ দুটি আরো জোরালোভাবে এই মামলার সঙ্গে যুক্ত হচ্ছে। এটি আগামী দিনগুলোতে আরো স্পষ্ট হতে পারে। মামলায় সরাসরি পক্ষ হওয়া বা গাম্বিয়ার মামলা পরিচালনার প্রস্তুতি এবং মামলা পরিচালনায় খরচ জোগানো ও অন্যান্যভাবে সহযোগিতার মতো বিষয় আসতে পারে।

যৌথ বিবৃতিতে স্পষ্টই আইসিজেতে গাম্বিয়া বনাম মিয়ানমার মামলায় কানাডা ও নেদারল্যান্ডসের পক্ষ হওয়ার ইঙ্গিত রয়েছে। কানাডার পররাষ্ট্রমন্ত্রী ফ্রাঁসোয়া-ফিলিপ শ্যাম্পেইন ও নেদারল্যান্ডসের পররাষ্ট্রমন্ত্রী স্টেফ ব্লক বলেছেন, জেনোসাইড সনদ লঙ্ঘনের অভিযোগে আইসিজেতে গাম্বিয়া বনাম মিয়ানমার মামলার বিষয়ে যুক্ত হতে কানাডা ও নেদারল্যান্ডস যৌথভাবে আগ্রহ প্রকাশ করছে।

আইসিজেতে মিয়ানমারের বিরুদ্ধে গাম্বিয়ার মামলাকে প্রশংসনীয় উদ্যোগ হিসেবে অভিহিত করে কানাডা ও নেদারল্যান্ডসের পররাষ্ট্রমন্ত্রীরা বলেছেন, মিয়ানমারের বিরুদ্ধে রোহিঙ্গাদের ওপর ব্যাপকমাত্রায় হত্যাযজ্ঞ, যৌন সহিংসতা, নির্যাতন, জোরপূর্বক বাস্তুচ্যুতি সংঘটনের অভিযোগ আনা হয়েছে। এসব কারণে ২০১৬ সাল থেকে সাড়ে আট লাখেরও বেশি রোহিঙ্গা রাখাইন রাজ্য থেকে পালিয়ে বাংলাদেশে আসতে বাধ্য হয়।

বিবৃতিতে কানাডা ও নেদারল্যান্ডসের পররাষ্ট্রমন্ত্রীরা বলেছেন, মানবতার কারণে মিয়ানমারকে জবাবদিহির আওতায় আনার উদ্যোগকে সমর্থন করা কানাডা ও নেদারল্যান্ডস তাদের দায়িত্ব বলে মনে করছে। এই প্রক্রিয়ায় সম্পৃক্ত হওয়ার অংশ হিসেবে কানাডা ও নেদারল্যান্ডস সম্ভাব্য জটিল এই আইনি বিষয়ে সহায়তা করবে এবং ধর্ষণসহ যৌন ও লিঙ্গভিত্তিক সহিংসতার বিষয়ে বিশেষ নজর দেবে।

তাঁরা আরো বলেছেন, ‘জেনোসাইডবিরোধী সনদের পক্ষ রাষ্ট্রগুলোকে শুধু জেনোসাইড প্রতিরোধই নয়, জেনোসাইডের হোতাদেরও অবশ্যই বিচারের আওতায় আনতে হবে। জেনোসাইডবিরোধী সনদ লঙ্ঘনের প্রতিকার আদায়ের চেষ্টায় গাম্বিয়ার উদ্যোগের প্রতি সহযোগিতা দিতে কানাডা ও নেদারল্যান্ডস জেনোসাইডবিরোধী সনদের সদস্য সব রাষ্ট্রকে তাদের আহ্বান পুনর্ব্যক্ত করছে।’

শেয়ার করে সঙ্গে থাকুন, আপনার অশুভ মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়। আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক গণঅধিকার'কে জানাতে ই-মেইল করুন- dailyganoadhikar@gmail.com আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।

দৈনিক গণঅধিকার'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

© ২০২১ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। দৈনিক গণঅধিকার | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বে-আইনি, ডেভোলপ ও ডিজাইন: DONET IT