বুধবার ১৯ জানুয়ারি ২০২২, ৬ই মাঘ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

রামেক হাসপাতালের করোনার টিকা কেন্দ্রে সামাজিক দূরত্বের বালাই নেই

প্রকাশিত : 10:00 PM, 19 April 2021 Monday

গণঅধিকার নিউজ ডেস্কঃ

করোনা ভাইরাস থেকে সুরক্ষিত থাকতে দ্বিতীয় ডোজ দেয়া শুরু হয়েছে। সারাদেশের ন্যায় রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চলছে করোনা টিকার দ্বিতীয় ডোজ। ২য় ডোজ শুরু হওয়ার পর থেকে হাসপাতালে সকাল থেকেই প্রচুর লোকের সমাগম হয়। টিকা দান কেন্দ্রে টিকা নিতে আসা মানুষের ব্যাপক লাইন দেখা গেছে। এতে সামাজিক দূরত্বের কোনো তোয়াক্কা করতে দেখা যায়নি। যে যার মতো গাদাগাদি করে টিকা নিতে লাইনে দাঁড়াচ্ছেন। অথচ বেশির ভাগ টিকা প্রত্যাশী মানুষ শিক্ষিত। প্রথম ও ২য় ডোজ দুই টিকা নেওয়ার পরও করোনা ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে। তারপরও টিকা নিতে আসা মানুষকে সামাজিক দূরত্ব ও স্বাস্থ্যবিধি মানার তোয়াক্কা করতে দেখা যাচ্ছেনা।

সরজমিনে খোঁজ নিয়ে দেখা গেছে, করোনার দ্বিতীয় ডোজ নেওয়া শুরু হওয়ার পর থেকেই রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের টিকা কেন্দ্রে টিকা নিতে আসা ব্যাপক মানুষ ভিড় জমায়। সকাল থেকেই উপচে পড়া মানুষের ভিড় থাকে। সোমবার সকালে দেখা যায়, করোনার টিকা নিতে আসা মানুষজন লাইনে দাঁড়িয়েছেন আবার কেউ গাদাগাদি করে টিকার জন্য অপেক্ষা করছেন। কাউকেই শারীরিক দূরত্ব মানতে দেখা যায়নি। এবাবে করোনা সংক্রমণের ঝুঁকি আরো বেড়ে যাচ্ছে। দুটি টিকা নিয়েও করোনা সংক্রমিত হয়েছে অনেকের।

করোনার টিকা নিতে আসা নজরুল নামের একব্যক্তি বলেন, করোনার টিকার লাইনেই স্বাস্থ্যবিধি মানা হচ্ছে না। কেউ শারীরিক দূরত্ব মানছেনা। এভাবে চলতে থাকলে করোনা সংক্রমণের ঝুঁকি আরো বেড়ে যেতে পারে। তাই সবাইকে আরো সচেতন হওয়া জরুরী। অথবা হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের পক্ষ থেকেই শারীরিক দূরত্ব মানার ব্যাপারে আরো সচেতনতার জন্য পদক্ষেপ নিতে হবে। নইলে টিকা নিতে এসেও অনেকেই করোনা সংক্রমিত হতে পারে।

আব্দুল্লাহ নামের আরেক ব্যক্তি বলেন, টিকা নিতে এসেও এমন অবস্থা হলে সমস্যা। তাই সবার উচিত শারীরিক দূরত্ব ও স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলা। যাতে সবাই করোনা থেকে দূরে থাকতে পারে। যদিও হাসপাতালের পক্ষ থেকে দাবি করা হচ্ছে, সবাইকে স্বাস্থ্যবিধি ও শারীরিক দূরত্ব মেনে টিকা নেওয়ার জন্য নির্দেশনা দেওয়া হয়। কিন্ত অনেকেই মানেনা। সবাইকে আরো সচেতন হওয়ার আহবান জানান হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।
উল্লেখ্য, রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রতিদিন একাধিক করোনায় চিকিৎসাধীন অবস্থায় রোগী মারা যাচ্ছে। প্রচুর রোগী হাসপাতারে ভর্তি হচ্ছে। এ অবস্থায় স্বাস্থ্যবিধি না মানলে আরো বেশি মানুষ সংক্রমিত হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

শেয়ার করে সঙ্গে থাকুন, আপনার অশুভ মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়। আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক গণঅধিকার'কে জানাতে ই-মেইল করুন- dailyganoadhikar@gmail.com আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।

দৈনিক গণঅধিকার'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

এই বিভাগের জনপ্রিয়

© ২০২২ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। দৈনিক গণঅধিকার | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বে-আইনি, ডেভোলপ ও ডিজাইন: DONET IT