সোমবার ১৭ জানুয়ারি ২০২২, ৪ঠা মাঘ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

রাজশাহীর বাঘায় সরকারি রাস্তা দখল করে বসতবাড়ি নির্মাণ

প্রকাশিত : 02:25 PM, 17 April 2021 Saturday

গণঅধিকার নিউজ ডেস্কঃ

রাজশাহীর বাঘা উপজেলার পাকুরিয়া সাহপাড়া গ্রামে শত বছরের পুরনো একটি সরকারি রাস্তা দখল করে বসতবাড়ি নির্মাণের অভিযোগ স্থানীয় বাসিন্দাদের।

স্থানীয় সুত্রে জানাযায় , উপজেলার বাঘা পৌরসভার ২নং ওয়ার্ড সাহপাড়া গ্রামে হাফিজুল, কালু, চাহার ও সুবাসের জমির দক্ষিণ দিয়ে ১০ ফিট প্রস্থের মেঠোপথ শত বছর পূর্বথেকে সরকারি ভাবে নির্ধারিত। এই রাস্তাটি রেকর্ড ও নকশায় উল্লেখ আছে।

কিন্তু সাহপাড়া গ্রামের শ্রী জিতেন সাহার ছেলে তরুণ ও বিষু সাহ আনুমানিক ১৩ বছর আগে সরকারি এই রাস্তা দখল করে বসতবাড়ি নির্মাণ করে। তারপর অমূল্য সাহের ছেলে গনেষ ও নিরঞ্জন সাহও আনুমানিক ১০ বছর আগে সরকারি এ রাস্তা দখল করে বসতবাড়ি নির্মাণ করে।বাড়ি তৈরীর সময় তারা যানতেন যে এই জায়গাটা সরকারি রাস্তার জন্য নির্ধারিত, তারপর ও বাড়ি নির্মাণ করে রাস্তাটি দখল করেন তারা। এলাকা বাসী তাদের বললে উত্তরে জানায় প্রয়োজন হলে বাড়ি সরিয়ে নিবেন। কিন্তু এখন আর তা মানতে চাচ্ছেন না তারা।

চলতি বছরে বাঘা পৌরসভা থেকে জনগনের চলাচলের সুবিধার্থে পাকা রাস্তা নির্মাণের সময় বাধে জটিলতা। একাধিক বার মাপ যোগ করে দেখাযায় যে ১৯২২ সালের রেকর্ড অনুসারে ১০ ফিট প্রস্থের এই রাস্তার ৮ ফিট জমি দখল করে রেখেছেন তরুন, বিষু, গনেষ ও নিরঞ্জন।

এখন আর দখল কৃত জমি ছাড়তে চাচ্ছেন না দখল দাররা। তাদের মতে উত্তর দিকের হাফিজুল, কালু, চাহার ও সুবাস সাহারা ফাঁকা জমি দিয়ে রাস্তা নির্মাণের দাবি জানান দখল কারিরা।

এলাকাবাসী দের মতে সরকারি রাস্তার জমি দখল করে বসতবাড়ি নির্মাণ করেছে তরুন, বিষু, গনেষ ও নিরঞ্জন আর অন্যরা কেন রাস্তায় জমি দিবে, এটা কোন আইন? সরকারি ভাবে রাস্তার জমি না থাকলে বিষয়টা আলাদা ছিল।তাদের জমিও কম নেয়। বর্ষামৌসুমে আমাদের চলাচলের ভিসন সমস্যা হয়, রাস্তাটা আমাদের খুব প্রয়োজন। এই জটিলতা কে কেন্দ্রকরে এখন রাস্তার কাজ বন্ধ রাখতে বাধ্য হচ্ছে ঠিকাদার প্রতিষ্ঠানটি বলে জানান এলাকাবাসী।

অবৈধ দখলদার তরুন, বিষু, গনেষ, নিরঞ্জন
বলেন, দীর্ঘদিন আগে জায়গা না মেপে বসতবাড়ি নির্মাণ করেছি।

অপরদিকে হাফিজুল, কালু, চাহার ও সুবাস সাহারা বলেন, মাপযোগের পরো আমরা রাস্তার জন্য ২.৫ থেকে ৩ ফিট জমি ছেরে সীমানা করেছি।রাতের আধারে সেই সীমানা পিলার কে বা কাহারা ভেঙ্গেদিয়েছে, তাতেও কাউকে কিছু বলিনি।রেকর্ড ও নকশায় যে ভাবে রাস্তা উল্লেখ আছে সেই ভাবে রাস্তা আমাদের সহ এলাকা বাসীর দাবি।তারা ভূমিহীন বা অসহায় না যে সরকারি রাস্তা দখল করে বাড়ি তৈরী করবে।
আমরা প্রশাসনের দৃষ্টি আকর্ষণ করছি এবং অনুরোধ জানাচ্ছি প্রশাসন যাতে এলাকাবাসীর ন্যায্য সরকারি রাস্তাটা পাইয়েদিতে সহায়তা করে।

উল্লেখ্য বিষয়, প্রয়োজনে এলাকাবাসীরা লিখিত ভাবে পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী, ডিসি অফিস, উপজেলা ইউএনও অফিস,ভূমি অফিস বরাবর অভিযোগ করবেন।এবং সেই সাথে মানববন্ধন ও সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করবেন।

স্থানীয় জনপ্রতিনিধি আলতাব হোসেন বলেন, পরিমাণ করে দেখা গেছে সরকারি রাস্তার জমি
তরুন, বিষু, গনেষ, নিরঞ্জনের মধ্যেই আছে। স্থানীয় ভাবে সমাধানের জন্য দুই পক্ষকে নিয়ে বসেছিলাম, কিন্তু দখলদাররা মানেনি। দুই পক্ষের সমঝোতা ছাড়া রাস্তা নির্মাণ সম্ভব না।

শেয়ার করে সঙ্গে থাকুন, আপনার অশুভ মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়। আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক গণঅধিকার'কে জানাতে ই-মেইল করুন- dailyganoadhikar@gmail.com আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।

দৈনিক গণঅধিকার'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

এই বিভাগের জনপ্রিয়

© ২০২২ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। দৈনিক গণঅধিকার | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বে-আইনি, ডেভোলপ ও ডিজাইন: DONET IT