ঢাকা, মঙ্গলবার ১৯ জানুয়ারি ২০২১, ৬ই মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

পিআইডি এর নিয়ম অনুসারে আবেদিত

শিরোনাম
◈ ভারতের থেকে ২০ লাখ ডোজ টিকা আসছে বুধবার ◈ দুর্নীতি ও জঙ্গীবাদ নির্মূলে সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করতে হবে : রাষ্ট্রপতি ◈ করোনায় আক্রান্ত ১০ হাজার পুলিশের জন্য ক্ষতিপূরণ চেয়েছে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ◈ ভূমি জালিয়াতি-হয়রানি রোধে আইন হচ্ছে : ভূমি সচিব ◈ ঋণের দুর্বলতা খুঁজতে ৯ সদস্যের কমিটি ◈ এসডিজি অর্জনে শিল্পায়নের কোনো বিকল্প নেই : শিল্পমন্ত্রী ◈ তিন মাসের মধ্যে ওটিটি নীতিমালার খসড়া তৈরি করার নির্দেশ ◈ দেশের সকল প্রান্তে দেশীয় প্রজাতির মাছ ছড়িয়ে দেয়া হবে : মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী ◈ অপরাধীদের রাজনৈতিক পরিচয় থাকলেও ছাড় দেওয়া হবে না ॥ কাদের ◈ রিফাত হত্যায় সাজাপ্রাপ্ত ৩ আসামির জামিন

মৌসুমের প্রথম শৈত্যপ্রবাহ শুরু

প্রকাশিত : 11:02 AM, 19 December 2020 Saturday

গণঅধিকার নিউজ ডেস্কঃ

অবেশেষে শীতে বইতে শুরু করেছে শৈত্যপ্রবাহ। শুক্রবার দেশের উত্তরের কয়েকটি জেলার ওপর দিয়ে বয়ে যাচ্ছে শৈত্যপ্রবাহ। এটাই মৌসুমের প্রথম শৈত্যপ্রবাহ, যা নীলফামারী, পঞ্চগড় ও কুড়িগ্রামের ওপর দিয়ে মৃদু আকারে প্রবাহিত হচ্ছে। আবহাওয়া অফিস জানিয়েছে, শৈত্যপ্রবাহের কারণে তাপমাত্র শুক্রবার থেকে ৯ ডিগ্রী সেলসিয়াসের ঘরে নেমে এসেছে। তাদের হিসাব মতে, তাপমাত্রা ১০ ডিগ্রীর নিচে নেমেগেলে সেটাকে শৈত্যপ্রবাহ হিসেবে ধরা হয়। এবারের শীতে এই প্রথম তাপমাত্রা এত নিচে নেমে এলো। তবে মৃদু এই শৈত্যপ্রবাহ সারাদেশের ওপর প্রভাব পড়বে না। কোন কোন অঞ্চলের ওপর কয়েকদিন স্থায়ী হতে পারে। সংশ্লিষ্ট জেলাগুলোতে শীতের মাত্রা আরও বেড়ে যাবে।

গত ১৬ ডিসেম্বর বিজয় দিবসে শুরু হয়েছে বাংলা শীত ঋতু পৌষ মাস। এর আগ থেকেই প্রকৃতিতে শীতল হাওয়া বিরাজ করছিল। শীত মৌসুমে সুদূর সাইবেরিয়া থেকে (যা উচ্চচাপ বলয় নামে পরিচিত) শীত হাওয়া এসে বাংলায় শীতের অনুভূতি শুরু হয়। ফলে তাপমাত্রা কমতে থাকে। বিশেষ করে উত্তরী হাওয়ার কারণে দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা যখন ১০ ডিগ্রী নিচে নেমে আসে তখন থেকে শৈত্যপ্রবাহ বইতে শুরু করে। ৮ থেকে ১০ ডিগ্রী সেলসিয়াসের মধ্যে তাপমাত্রা থাকলে সেটাকে মৃদু শৈত্যপ্রবাহ হিসেবে ধরা হয়। কিন্তু তাপমাত্রা আরও কমে ৮ থেকে ৬ ডিগ্রী সেলসিয়াসের নিচে নেমে এলে সেটাকে মাঝারি মাত্রার শৈত্যপ্রবাহ ধরা হয়। প্রথম দফায় শৈত্যপ্রবাহ দেশের বিভিন্ন অঞ্চলের ওপর মৃদু আকারেই থাকবে বলে আবহাওয়াবিদরা জানান। তাদের মতে, তাপমাত্রা ৬ ডিগ্রী সেলসিয়াসের নিচে নেমে গেলেই সেটাকে তীব্র শৈত্যপ্রবাহ হিসেবে ধরা হয়। ৪ ডিগ্রী সেলসিয়াসের নিচে যখন তাপমাত্রা নেমে যায় সেটাকে অস্বাভাবিক শীত হিসেবে ধরা হয়। তবে আবহাওয়াবিদরা জানান, এই ডিসেম্বরেই আরও এক দফায় শৈত্যপ্রবাহ আসতে পারে। যেসব এলাকার ওপর দিয়ে শৈত্যপ্রবাহ বয়ে যাবে সেসব অঞ্চলে বেশ শীত অনুভূত হবে। এর বাইরে অন্য অঞ্চলে শীত কিছুট কমা-বাড়া করবে। সারাদেশের ওপর একযোগে শৈত্যপ্রবাহের সম্ভাবনা এবার কম। ফলে সব এলাকায় একযোগে শীত জেঁকে আসছে না। তবে শুক্রবার থেকে যেসব এলাকার উপর দিয়ে শৈত্য শুরু হয়েছে সেসব এলাকায় শীত বেশ জেঁকে বসেছে। বিশেষ করে সন্ধ্যার পর থেকে শীতের অনুভূতি বেশ বেড়েছে। সাধারণ খেটে খাওয়া মানুষ শীতে বেশ কষ্টের মধ্যে পড়ছে।

শেয়ার করে সঙ্গে থাকুন, আপনার অশুভ মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়। আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক গণঅধিকার'কে জানাতে ই-মেইল করুন- dailyganoadhikar@gmail.com আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।

দৈনিক গণঅধিকার'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

© ২০২১ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। দৈনিক গণঅধিকার | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বে-আইনি, ডেভোলপ ও ডিজাইন: DONET IT