ঢাকা, মঙ্গলবার ২৬ অক্টোবর ২০২১, ১১ই কার্তিক, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

পিআইডি এর নিয়ম অনুসারে আবেদিত

মোদি ২৬ মার্চ বাংলাদেশ সফরে আসতে পারেন

প্রকাশিত : 11:39 AM, 19 October 2020 Monday

গণঅধিকার নিউজ ডেস্কঃ

পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. একে আবদুল মোমেন বলেছেন, ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি আগামী বছরের ২৬ মার্চ বাংলাদেশে আসতে পারেন। মোদিকে বাংলাদেশ সফরের আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে। রবিবার ঢাকায় নবনিযুক্ত ভারতীয় হাইকমিশনার বিক্রম কুমার দোরাইস্বামী রাষ্ট্রীয় অতিথি ভবন পদ্মায় পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. একে আবদুল মোমেনের সঙ্গে বৈঠক করেন। খবর বাংলানিউজের।

বৈঠক শেষে পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, স্বাধীনতার ৫০ বছর পূর্তিতে আগামী বছরের ১৭ বা ২৬ মার্চ উপলক্ষে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে আসার জন্য আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে। তিনি আসতে পারেন। এছাড়া আগামী ১৬ ডিসেম্বর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা-ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে ভার্চুয়াল বৈঠকের প্রস্তুতি নেয়া হয়েছে। ঢাকায় নবনিযুক্ত ভারতীয় হাইকমিশনার বিক্রম দোরাইস্বামী ৫ অক্টোবর ত্রিপুরা সীমান্ত দিয়ে বাংলাদেশে আসেন। গত ৮ অক্টোবর রাষ্ট্রপতির কাছে পরিচয়পত্র পেশ করেন তিনি। ঢাকায় যোগ দেয়ার পর পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে এটাই প্রথম বৈঠক। বাংলাদেশে ভারতের ১৭তম হাইকমিশনার হিসেবে যোগ দেন বিক্রম দোরাইস্বামী। ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন। তিনি ভারতের পররাষ্ট্র ক্যাডারের ১৯৯২ ব্যাচের কর্মকর্তা।

রোহিঙ্গাদের ভাসানচরে না পাঠাতে চাপ রয়েছে ॥ পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন জানিয়েছেন, রোহিঙ্গাদের ভাসানচরে না পাঠানোর জন্য আন্তর্জাতিক বিভিন্ন সংস্থা থেকে সরকারের ওপর চাপ রয়েছে। তবে আমরা মনে করি, রোহিঙ্গারা সেখানে গেলে ভাল থাকবেন। রবিবার ঢাকায় নবনিযুক্ত ভারতীয় হাইকমিশনার বিক্রম কুমার দোরাইস্বামী রাষ্ট্রীয় অতিথি ভবন পদ্মায় পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেনের সঙ্গে বৈঠক করেন। খবর বাংলানিউজের।

বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে মন্ত্রী বলেন, রোহিঙ্গাদের ভাসানচরে না পাঠানোর জন্য আন্তর্জাতিক বিভিন্ন সংস্থা থেকে সরকারের ওপর চাপ রয়েছে। বিশেষ করে ইউএনএইচসিআরসহ বিভিন্ন সংস্থা থেকে চাপ রয়েছে। তবে রোহিঙ্গারা সেখানে গেলে ভাল থাকবেন। ড. মোমেন বলেন, রোহিঙ্গারা রাখাইনে যেভাবে জীবিকা নির্বাহ করতেন, ভাসানচরে গেলে সেভাবেই জীবিকা নির্বাহ করতে পারবেন। এছাড়া ভাসানচরে বাঁধ দেয়া হয়েছে। সেখানে এখন কোন পানি ওঠে না। তাই ভাসানচরে গেলে কোন সমস্যা হবে না। সেটা একটা সুন্দর জায়গা। মিয়ানমার সরকার বাংলাদেশের বিভিন্ন পত্রিকা ও ওয়েবাসাইট বন্ধ করে দিয়েছে- এ বিষয়ে মন্তব্য জানতে চাইলে ড. মোমেন বলেন, এটা মিয়ানমার সরকারের ব্যাপার, আমাদের কিছু বলার নেই। তবে আমরা খোলামেলা, আমরা তাদের কোন ওয়েবসাইট বন্ধ করিনি। টাকা ফেরত পেতে সহযোগিতা কামনা ॥ বাংলাদেশ ব্যাংক থেকে চুরি হওয়া টাকা ফেরত পেতে ফিলিপিন্সের সহযোগিতা চেয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. একে আব্দুল মোমেন। রবিবার রাষ্ট্রীয় অতিথি ভবন পদ্মায় বাংলাদেশে নিযুক্ত ফিলিপিন্সের রাষ্ট্রদূত ভিসেন্তে ভিভেনসিও টি বানদিল্লোর সঙ্গে এক বৈঠকে পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ অনুরোধ জানান। খবর বাংলানিউজের।

ঢাকায় প্রায় সাড়ে ছয় বছর দায়িত্ব পালন শেষে ফিলিপিন্সের রাষ্ট্রদূত ভিসেন্তে ভিভেনসিও টি বানদিল্লোর বিদায় নিচ্ছেন। রবিবার পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে বিদায়ী বৈঠক করেন তিনি। বৈঠকে বাংলাদেশ ব্যাংকের চুরি হওয়া ৮১ মিলিয়ন মার্কিন ডলার অর্থের মধ্যে ১৫ মিলিয়ন মার্কিন ডলার ফেরাতে সহায়তা করায় ফিলিপিন্স সরকারকে ধন্যবাদ জানান মোমেন। এ সময় বাকি অর্থ ফেরাতে ফিলিপিন্স সরকারের সহযোগিতা চান। ফিলিপিন্সের রাষ্ট্রদূত ভিসেন্তে ভিভেনসিও টি বানদিল্লো এ বিষয়ে আশ্বস্ত করেন। বৈঠকে আসিয়ানের সদস্য দেশ হিসেবে রোহিঙ্গাদের ফেরত পাঠাতে ফিলিপিন্সের সহায়তা কামনা করেন ড. মোমেন।

শেয়ার করে সঙ্গে থাকুন, আপনার অশুভ মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়। আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক গণঅধিকার'কে জানাতে ই-মেইল করুন- dailyganoadhikar@gmail.com আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।

দৈনিক গণঅধিকার'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

© ২০২১ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। দৈনিক গণঅধিকার | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বে-আইনি, ডেভোলপ ও ডিজাইন: DONET IT