ঢাকা, বুধবার ২২ সেপ্টেম্বর ২০২১, ৭ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

পিআইডি এর নিয়ম অনুসারে আবেদিত

মোটা চালের দাম কিছুটা কমলেও বেড়েছে পেঁয়াজ আদা ও কাঁচা মরিচের

প্রকাশিত : 08:52 AM, 5 September 2020 Saturday

গণঅধিকার নিউজ ডেস্কঃ

নিত্যপণ্যের বাজারে মোটা চালের দাম সামান্য কমে বিক্রি হচ্ছে ৪২-৪৮ টাকায়। এক্ষেত্রে দাম কমেছে কেজিতে ১-২ টাকা মাত্র। এছাড়া চিকন ও মাঝারি মানের চালের দাম অপরিবর্তিত রয়েছে। বেড়েছে শাক-সবজিসহ কাঁচামরিচের দাম। এছাড়া পেঁয়াজ, আলু, আদা মশুর ডাল ও ব্রয়লার মুরগির দাম বেড়েছে আরেক দফা। তবে রসুন ও মসলাপাতির দাম কমেছে। ভোজ্যতেল, চিনি, আটা ও ডিমের দাম অপরিবর্তিত রয়েছে।

শুক্রবার রাজধানীর কাওরান বাজার, খিলগাঁও সিটি কর্পোরেশন বাজার, মিরপুর সিটি কর্পোরেশন বাজার, মোহাম্মদপুর টাউন হল মার্কেট এবং ফার্মগেট কাঁচাবাজার থেকে নিত্যপণ্যের দরদামের এসব তথ্য পাওয়া গেছে। এছাড়া সরকারী বাজার নিয়ন্ত্রণকারী সস্থা টিসিবি থেকেও কয়েকটি নিত্যপণ্যের দরদামের তথ্য দিয়েছে। এদিকে বাজারে স্বর্ণা ও চায়না ইরিখ্যাত মোটা চালের দাম কেজিতে ২ টাকা কমেছে। এছাড়া মাঝারি মানের পাইজাম ও লতা ৪৮-৫৮ এবং সরু চিকন মিনিকেট ও নাজিরশাইল চাল ৫৪-৬৪ টাকায় বিক্রি হচ্ছে প্রতিকেজি। গত প্রায় এক মাস ধরে বাজারে চালের দাম বাড়তি। চালের এই দাম বাড়ার পেছনে মিলমালিকদের কারসাজি রয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। দেশে সবচেয়ে বেশি প্রয়োজন হয় মোটা চালের। সেই চালের দাম বেড়ে যাওয়ার কারণে স্বল্প আয়ের মানুষ সবচেয়ে বেশি বেকায়দায় পড়ে।

চাল ব্যবসায়ীরা বলছেল, এখনও সেইভাবে চালের দাম কমেনি। দাম আরও কমা উচিত। খিলগাঁও সিটি কর্পোরেশন মার্কেট থেকে এসিআইয়ের ২৫ কেজি বস্তার চাল ১৩৫০ টাকা দিয়ে কিনছিলেন বাসাবোর বাসিন্দা ফজলুল হক। তিনি জনকণ্ঠকে বলেন, এই চালে প্রতি বস্তায় ৫০ টাকা বাড়তি নেয়া হচ্ছে। রশিদের মিনিকেট চালও একই দামে বিক্রি হচ্ছে বলে তিনি জানান। বাজারে দাম বেড়ে প্রতিকেজি গোল আলু ৩৫-৪০, পেঁয়াজ প্রতিকেজি দেশী ৬০ এবং আমদানিকৃতটি ৫০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে খুচরা বাজারে। সপ্তাহখানেকের ব্যবধানে কেজিতে প্রায় ২০ টাকা বেড়ে গেছে পেঁয়াজের দাম। এছাড়া প্রতিকেজি মশুর ডাল জাত ও মানভেদে ৬৫-১২৫, আটা ৩৩-৩৫, আদা দাম বেড়ে ২২০-২৫০, রসুন ৯০-১০০ এবং ব্রয়লার মুরগি ১২০-১৩০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে খুচরা বাজারে।

এদিকে বাজারে শাক-সবজির দাম আরেক দফা বেড়েছে। সবচেয়ে বেশি বেড়েছে কাঁচামরিচের দাম। মরিচের ঝাঁজ যেন কমছেই না। প্রতিকেজি কাঁচামরিচ ২০০-২৫০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। এছাড়া অন্যান্য কোন সবজিই ৬০ টাকার নিচে পাওয়া যাচ্ছে না। তবে বাজারে ইলিশ মাছের সরবরাহ বাড়লেও দাম কমেনি। প্রতিকেজি ইলিশ মাছ আকার ও সাইজভেদে ৬৫০-১২০০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে খুচরা বাজারে। এছাড়া চড়া দেশী মাছের দাম। তবে গরু ও খাসির মাংস আগের দামে বিক্রি হচ্ছে খুচরা বাজারে।

শেয়ার করে সঙ্গে থাকুন, আপনার অশুভ মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়। আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক গণঅধিকার'কে জানাতে ই-মেইল করুন- dailyganoadhikar@gmail.com আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।

দৈনিক গণঅধিকার'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

© ২০২১ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। দৈনিক গণঅধিকার | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বে-আইনি, ডেভোলপ ও ডিজাইন: DONET IT