ঢাকা, শনিবার ২৩ জানুয়ারি ২০২১, ১০ই মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

পিআইডি এর নিয়ম অনুসারে আবেদিত

ভোট কেন্দ্রে হামলা বাসে আগুন ॥ অস্থিতিশীল পরিস্থিতি সৃষ্টির চেষ্টা

প্রকাশিত : 12:30 PM, 13 November 2020 Friday

গণঅধিকার নিউজ ডেস্কঃ

দেশে অস্থিতিশীল পরিস্থিতি সৃষ্টির জন্য নাশকতামূলক তৎপরতা চালানো হয়েছে। বৃহস্পতিবার খোদ রাজধানীর সাত জায়গায় সাত বাসে আগুন দেয়ার ঘটনা ঘটেছে। এর মধ্যে এক ঘণ্টার ব্যবধানে ছয় জায়গায় ছয় যাত্রীবাহী বাসে সিরিজ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। সর্বশেষ বিকেলে বারিধারা এলাকায় আরও একটি বাসে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। তবে কোন হতাহতের ঘটনা ঘটেনি। একের পর এক বাসে আগুনের ঘটনায় রীতিমতো চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে। এছাড়া ঢাকা-১৮ আসনে উপনির্বাচনে একটি ভোটকেন্দ্রে বোমা হামলাও হয়েছে। দুইটি ঘটনার মধ্যে যোগসূত্র থাকতে পারে।

এদিকে বিএনপির তরফ থেকে বলা হয়েছে, ভোটে কারচুপি হয়েছে। সরকার ও নির্বাচন কমিশন ভোটকেন্দ্রগুলোতে সুষ্ঠু নির্বাচনের পরিবেশ সৃষ্টি করতে পারেনি। পুনরায় ভোট গ্রহণের দাবিও জানানো হয়েছে দলটির তরফ থেকে। বাসে অগ্নিসংযোগের প্রতিবাদে বিক্ষোভ করেছে যুবলীগ

আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী ও গোয়েন্দা সংস্থাগুলোর ধারণা, ভোটকে কেন্দ্র করে পরিকল্পিতভাবে দেশে অস্থিতিশীল পরিস্থিতি সৃষ্টি করতেই এমন নাশকতামূলক কর্মকাণ্ড চালানো হয়েছে। নাশকতার সঙ্গে স্বাধীনতাবিরোধীরা জড়িত বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে।

ফায়ার সার্ভিস এ্যান্ড সিভিল ডিফেন্স সদর দফতর দফতরের কেন্দ্রীয় নিয়ন্ত্রণ কক্ষ জানায়, বৃহস্পতিবার দুপুর সাড়ে বারোটার দিকে ঢাকার মতিঝিলে মধুমিতা সিনেমা হলের সামনে, এরপর পর্যায়ক্রমে গুলিস্তান জিরো পয়েন্টের কাছে পীর ইয়ামেনী মার্কেটের সামনে, শাহবাগের আজিজ সুপার মার্কেটের পশ্চিম পার্শ্বে পাওয়ার স্টেশনের কোণায়, খিলগাঁওয়ের শাহজাহানপুরে, সচিবালয়ের ৫ নম্বর গেটের সামনে ও বংশালের নয়াবাজারে একটি করে মোট ছয় যাত্রীবাহী বাসে অগ্নিকা-ের ঘটনা ঘটে। মাত্র এক ঘণ্টার ব্যবধানে ছয় বাসে আগুন লাগে। তবে কোন হতাহতের ঘটনা ঘটেনি। সর্বশেষ বিকেল সাড়ে চারটায় ভাটারা থানাধীন বারিধারা এলাকার কোকাকোলা গেটের সামনে একটি যাত্রীবাসে অগ্নিকা-ের ঘটনা ঘটে। আগুনে কোন হতাহতের ঘটনা ঘটেনি। ফায়ার সার্ভিসের সাতটি পৃথক ইউনিট সাত জায়গায় লাগা সাত বাসের আগুন নির্বাপন করে। এরমধ্যে শাহবাগের আজিজ সুপার মার্কেটের সামনে লাগা আগুনে বাসটি সম্পূর্ণ পুড়ে গেছে।

শাহবাজ আজিজ সুপার মার্কেটের কোনায় দেওয়ান পরিবহনের একটি যাত্রীবাহী বাসে আগুন লাগে। বাসটির চালক মোঃ রায়হানের দাবি, ৪০ সিটের বাসে ১২/১৩ জন যাত্রী ছিল। বাসটি কাঁটাবন সিগন্যাল পার হয়ে আজিজ সুপার মার্কেটের পশ্চিম দিকের কোনায় পাওয়ার স্টেশনের কাছাকাছি যাওয়া মাত্র গাড়ির পেছনে দিকে আগুন দেখতে পাই। এ সময় সবাই আগুন আগুন বলে চিৎকার করছিলেন। যাত্রীরা আগুনের কথা শুনেই আতঙ্কে বাস থেকে নেমে যান। দেওয়ান পরিবহনের পুড়ে বাসটির মালিক আবদুর রহমানের দাবি, তার মাত্র দুইটি বাস। যে গাড়িটি পুড়ে গেছে, সেটি মাত্র দুই মাস আগে রাস্তায় নামিয়েছি। বাস পুড়ে যাওয়ায় তিনি পথে বসে গেছেন।

শাহবাগ থানার ওসি মোহাম্মদ মামুন অর রশীদ জানান, অজ্ঞাত ব্যক্তিরা কাঁটাবন ও সচিবালয়ের ৫ নম্বর গেটের সামনে দুইটি বাসে আগুন দেয়। এ ঘটনায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

ঢাকা মহানগর পুলিশ (ডিএমপি) সূত্র জানায়, দুপুর সাড়ে ১২টা থেকে দেড়টার মধ্যে ছয় বাসে আগুন দেয়ার ঘটনা ঘটে। সর্বশেষ ভাটারায় একটি বাসে আগুন দেয়ার ঘটনা ঘটে। পুড়ে যাওয়া বাসগুলো মামলার আলামত হিসেবে জব্দ করা হয়েছে। সেগুলো সংশ্লিষ্ট থানা হেফাজতে রয়েছে। এসব বাসের মালিক কে বা কারা এবং বাসের চালক থেকে শুরু করে হেলপার পর্যন্ত সবার সম্পর্কে বিস্তারিত জানার চেষ্টা চলছে।

ঢাকা মহানগর পুলিশের মিডিয়া এ্যান্ড পাবলিক রিলেশনস বিভাগের উপকমিশনার প্রকৌশলী মোঃ ওয়ালিদ হোসেন জানান, নাশকতা সৃষ্টির লক্ষ্যে দুর্বৃত্তরা পরিকল্পিতভাবে বাসে আগুন দিয়ে থাকতে পারে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে। ঘটনাস্থলের আশপাশে থাকা সিসি ক্যামেরার ফুটেজ সংগ্রহ করে পর্যালোচনা করা হচ্ছে। এছাড়া প্রত্যক্ষদর্শী ও বিভিন্ন স্থানে দায়িত্বরত পুলিশ সদস্যদের সহযোগিতায় জড়িত ব্যক্তিদের শনাক্ত করার চেষ্টা চলছে। বাসগুলো সংশ্লিষ্ট থানা হেফাজতে রয়েছে। প্রতিটি ঘটনায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে। জব্দ করা বাসগুলো মামলার আলামত হিসেবে দেখানো হবে। [RTF bookmark start: }_GoBack[RTF bookmark end: }থএড়ইধপশতিনি আরও জানান, ঢাকা-১৮ আসনে উপনির্বাচনকে কেন্দ্র করে এমন ঘটনা ঘটানো হতে পারে। বিষয়টি গুরুত্বের সঙ্গে তদন্ত করা হচ্ছে।

র‌্যাবের লিগ্যাল এ্যান্ড মিডিয়া উইংয়ের পরিচালক লে. কর্নেল মোঃ আশিক বিল্লাহ জানান, ঘটনাগুলো তারা অত্যন্ত গুরুত্বের সঙ্গে খতিয়ে দেখছেন। এমন নাশকতার সঙ্গে জড়িতদের গ্রেফতারে সাঁড়াশি অভিযান চলছে।

গোয়েন্দা সূত্র বলছে, ঘটনাস্থল পর্যবেক্ষণ করা হয়েছে। আলামতও সংগ্রহ করা হয়েছে। সে মোতাবেক ধারণা করা হচ্ছে, যাত্রীবেশে বাসে ওঠে আগুন লাগিয়ে দেয়া হয়ে থাকতে পারে। আগুন দেয়ার আগে বাসে আগুন আগুন বলে চিৎকার করে যাত্রীদের মধ্যে আতঙ্ক সৃষ্টি করা হয়। এতে যাত্রীরা তাড়াহুড়ো করে বাস থেকে নেমে যান। বাসে যাত্রী বেশে থাকা নাশকতাকারীরা বাসে আগুন দিয়ে চলে যায়। তবে আগুন লাগানোর সঙ্গে বাসগুলোর স্টাফরাও জড়িত থাকতে পারে। হয়ত তারাই আগুন আগুন বলে চিৎকার করে, যাত্রীদের আতঙ্কিত করে নামিয়ে দেয়ার পরিস্থিতির সৃষ্টি করেছে। যাত্রীরা নেমে গেলে তাদেরই হয়ত কেউ আগুন দিয়ে যাত্রীদের সঙ্গে ভিড়ে মিশে নেমে যায়।

এদিকে ঢাকা-১৮ আসনের উপনির্বাচনে উত্তরার মালেকা বানু আদর্শ বিদ্যানিকেতন স্কুল কেন্দ্রের বাইরে হাতবোমার বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে। ঢাকা মহানগর পুলিশের উত্তরা বিভাগের উপকমিশনার মোহাম্মদ শহীদুল্লাহ জানান, বৃহস্পতিবার বেলা এগারোটার দিকে ভোট কেন্দ্রটি সামনে বোমাবাজির ঘটনাটি ঘটে। বোমা হামলায় জড়িত থাকার সন্দেহে তিনজনকে আটক করা হয়েছে। ওই এলাকায় পুলিশ অভিযান চালাচ্ছে। কয়েকটি হাতে তৈরি বোমাও উদ্ধার হয়েছে।

শেয়ার করে সঙ্গে থাকুন, আপনার অশুভ মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়। আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক গণঅধিকার'কে জানাতে ই-মেইল করুন- dailyganoadhikar@gmail.com আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।

দৈনিক গণঅধিকার'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

© ২০২১ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। দৈনিক গণঅধিকার | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বে-আইনি, ডেভোলপ ও ডিজাইন: DONET IT