ঢাকা, বুধবার ১৪ এপ্রিল ২০২১, ১লা বৈশাখ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

পিআইডি এর নিয়ম অনুসারে আবেদিত

বায়ার্নকে ঘরের মাঠে হারাল পিএসজি

প্রকাশিত : 01:14 PM, 8 April 2021 Thursday

গণঅধিকার নিউজ ডেস্কঃ

বায়ার্ন মিউনিখের কাছে হেরেই গত চ্যাম্পিয়নস লিগে শিরোপা ছোঁয়া হয়নি পিএসজির। তবে এবার জার্মান চ্যাম্পিয়নদের পেয়ে প্রতিশোধ নিয়েছে মাউরিসিও পচেত্তিনোর শিষ্যরা।

ফরাসি তারকা কিলিয়ান এমবাপ্পে ও ব্রাজিলীয় সুপারস্টার নেইমারের নৈপুণ্যে বায়ার্নকে তাদের মাঠেই কোয়ার্টার-ফাইনালের প্রথম লেগে ৩-২ গোলে হারিয়েছে পিএসজি। বুধবার রাতে আলিয়াঞ্জ অ্যারেনায় এমবাপ্পে ও মার্কিনিয়োসের গোলে এগিয়ে যায় পিএসজি। তবে এরপরেই ঘুরে দাঁড়ায় ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়নরা। এরিক-মাক্মিম চুপো মোটিং ব্যবধান কমানোর পর সমতা টানেন টমাস মুলার। কিন্তু এমবাপ্পের দ্বিতীয় গোলে জয় নিশ্চিত করে ফরাসি চ্যাম্পিয়নরা। নেইমার গোল করতে না পারলেও দুটি গোলেই দারুণ অবদান রাখেন।

ম্যাচের মাত্র তৃতীয় মিনিটেই পাল্টা আক্রমণে এগিয়ে যায় পিএসজি। ডি-বক্সের মুখে ডিফেন্ডারদের ঘিরে থাকা অবস্থায় ডান দিকে বল বাড়ান নেইমার। সেই বল ধরে গোলরক্ষককে পরাস্ত করেন এমবাপ্পে। ২৮তম মিনিটে ব্যবধান দ্বিগুণ করে পিএসজি। মার্কিনিয়োসের করা এই গোলেও অবদান আছে নেইমারের।

চুপো মোটিংয়ের গোলে বায়ার্ন ব্যবধান কমায় ৩৭তম মিনিটে। ৬০তম মিনিটে গোল করে স্কোরলাইন ২-২ করেন টমাস মুলার। তবে ৬৮তম মিনিটে আবারও দলকে এগিয়ে নেন এমবাপ্পে। ম্যাচের বাকি সময় আর গোল না হওয়ায় জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে নেইমাররা।

এই পরাজয়ের ফলে আগামী মঙ্গলবার ফিরতি পর্বে প্রতিপক্ষের মাঠে কমপক্ষে দুই গোলের ব্যবধানে জিততে হবে বায়ার্নকে। অন্যদিকে ঘরের মাঠে ড্র করলেই যথেষ্ট হবে পিএসজির। এমনকি ১-০ গোলে হারলেও সেমিতে যাবে নেইমাররা।

শেয়ার করে সঙ্গে থাকুন, আপনার অশুভ মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়। আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক গণঅধিকার'কে জানাতে ই-মেইল করুন- dailyganoadhikar@gmail.com আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।

দৈনিক গণঅধিকার'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

© ২০২১ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। দৈনিক গণঅধিকার | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বে-আইনি, ডেভোলপ ও ডিজাইন: DONET IT