ঢাকা, বৃহস্পতিবার ২৮ অক্টোবর ২০২১, ১৩ই কার্তিক, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

পিআইডি এর নিয়ম অনুসারে আবেদিত

বায়ান্ন বাজার তিপ্পান্ন গলি

প্রকাশিত : 12:22 PM, 13 November 2020 Friday

গণঅধিকার নিউজ ডেস্কঃ

ঢাকার গণপরিবহনের অবস্থা বিশেষ ভাল ছিল না কখনই। তদুপরি যানজটে নাকাল হওয়া ছিল নিত্যদিনের ঘটনা। এখন যানজট দূর হয়ে গেছে, না, এমন নয়। তবে পাঠাও বা উবারের মতো রাইড শেয়ারিং এ্যাপ চালু হওয়ার পর যাত্রী পরিবহনের দৃশ্যমান পরিবর্তন এসেছে। মোবাইল ফোননির্ভর এ্যাপলিকেশন দ্রুত জনপ্রিয় হয়ে ওঠে। তরুণ প্রজন্মের প্রতিনিধিরা সেবাটি লুফে নিতে একদম দেরি করেন না। কর্মজীবী মানুষ মোটরসাইকেলে চড়ে বহু দূরের পথ অভাবনীয় কম সময়ে পাড়ি দেয়ার সুযোগ গ্রহণ করেন হাসিমুখে। দুই চাকার সরু বাইকের জন্য যানজট তেমন বাধা হতে পারে না। পেট মোটা গাড়ি হয়তো ঘণ্টার পর ঘণ্টা এক জায়গায় দাঁড়িয়ে থাকে। অল্প জায়গা করে নিয়ে দিব্যি গন্তব্যে পৌঁছে যায় এ্যাপসের মোটরসাইকেল। এ ক্ষেত্রে বাইকের তথ্য, চালক ও যাত্রীর পরিচয়, গন্তব্য, ব্যবহার করা পথসহ জরুরী সব তথ্য সংরক্ষণ করা হয়। রাইড শেয়ারিং কোম্পানিগুলোর ভার্চুয়াল নজরদারির কারণে এ ধরনের সেবা মোটামুটি নিরাপদ। অন্তত বড় ঝুঁকি থাকে না। বাইক চালানোর খরচও অপেক্ষাকৃত কম। ভাড়া হিসেবে যে টাকা আসে, সেটিও যাত্রীর গায়ে তেমন লাগে না। সব মিলিয়েই এ্যাপসভিত্তিক যাত্রী পরিবহন জনপ্রিয় হয়ে ওঠে। স্মার্ট সেবাদানের কাজে নিযুক্ত হন হাজার হাজার রাইডার। বাড়তি আয়ের পাশাপাশি বহু বেকারের কর্মসংস্থানের সুযোগ হয়।

কিন্তু হায়! বর্তমানে এসে কিম্ভুতকিমাকার এক দৃশ্য চোখে পড়ছে। অতিরিক্ত লাভের আশায় এ্যাপস বাদ দিয়ে সরাসরি ভাড়ায় খাটছেন চালকরা। চালকদের এ অংশটি ঢাকার বিভিন্ন রাস্তার মোড়ে অবস্থান নিচ্ছেন। যে কোন রাস্তার মোড়ে বাইক নিয়ে তাদের দাঁড়িয়ে থাকতে দেখা যাচ্ছে। যাত্রীর খুঁজে পথচারীর মুখের দিকে অনেকটা হা করে তাকিয়ে থাকছেন তারা। ডাকাডাকি করছেন। এনালগ এই ডাকাডাকি অনেকের জন্যই অস্বস্তির কারণ হচ্ছে। যিনি আসলে কোথাও যাবেন না, তাকেও চালকের ডাকাডাকিতে থামতে হচ্ছে। পড়তে হচ্ছে অস্বস্তিতে। কেউ কেউ আবার দামদর করে ঠিক ওঠে পড়ছেন বাইকে। কিন্তু চালক বা যাত্রী কারও কোন জবাবদিহিতা নেই। অপেশদার চালক প্রায়শই বেপরোয়া। অঘটনপটিয়সী। সড়কে ওঠে বড় বড় দুর্ঘটনাও ঘটাচ্ছেন। শুধু তাই নয়, চালকের ছদ্মবেশে সামনে চলে আসছে ডাকাত বা অপহরণকারী চক্রের সদস্যরাও। অপহরণ খুনসহ বিভিন্ন অপরাধ সংঘটিত করছে তারা। গণমাধ্যমে এসব খবর আসছে। অন্যদিকে রাইড শেয়ারিংয়ের মতো সুশৃঙ্খল ও স্মার্ট সেবাটি পড়ছে হুমকির মুখে। কেন এমনটি হবে? যে কোন সিস্টেম নষ্ট করে দেয়ার মধ্যে কী এমন সুখ? এমন আরও অনেক প্রশ্ন। উত্তর জানতে কথা হয় কয়েকজন চালকের সঙ্গে। সবাই যা বলেন তার অনুবাদ : কষ্টের টাকার মূল ভাগ নিয়ে যাচ্ছে রাইড শেয়ারিং কোম্পানিগুলো। আমরা সামান্যই পাই। তাতে পুষে না। তাহলে সেটা নিয়ে কোম্পানির সঙ্গে কেন কথা বলছেন না? তাছাড়া কিছুদিন আগেও তো আপনারা সন্তুষ্ট ছিলেন। এখন একেবারে এ্যাপ বাদ দিয়ে পথে নামতে হলো? আর কথা বলতে রাজি হলেন না চালকরা। এদিকে পুলিশও অনিরাপদ যাত্রী পরিবহন নিয়ে খুব একটা চিন্তিত নয় বলে মনে হয়েছে। সামান্য টাকা পকেটে ঢুকিয়ে দিলেই পুলিশ খুশি। বলার অপেক্ষা রাখে না, এভাবে চলতে থাকলে বড় বিপদের কারণ হবে এই বাইকগুলো। আমরা কি একটু আগেভাগে দৃষ্টি দিতে পারি না?

অন্য প্রসঙ্গ। কার্তিক প্রায় শেষ হতে চলল। এর পরই অগ্রহায়ণ। মাসের প্রথম দিন রাজধানীতে উদ্যাপিত হবে নবান্ন উৎসব। হ্যাঁ, করোনার কালে অনেক কিছুই যখন বন্ধ তখন নবান্ন উৎসব আয়োজনের খবর পাওয়া গেছে। এখন চলছে জোর প্রস্তুতি। গত প্রায় ২০ বছর ধরে চারুকলার বকুলতলায় নাগরিক এ উৎসবের আয়োজন করা হয়ে আসছে। এবার অবশ্য মঞ্চ সাজানো হচ্ছে শিল্পকলা একাডেমিতে। আয়োজকরা জানিয়েছেন, এবার শিল্পকলা একাডেমির কফিহাউস চত্বরে মঞ্চ তৈরির প্রস্তুতি নেয়া হয়েছে। লোক চেতনাকে প্রাধান্য দিয়ে মঞ্চ সাজানো হবে। ব্যবহার করা হবে গ্রামীণ নানা অনুষঙ্গ। সঙ্গীত নৃত্য ও কবিতার ভাষায় ফসলকেন্দ্রিক অর্থনীতে ফুটিয়ে তোলা হবে। জয়গান করা হবে কৃষকের। নাগরিক জীবনে ভুলতে বসা লোকসংস্কৃতি নতুন করে প্রাণ পাবে নবান্ন উৎসবের মঞ্চে। বিকেল ৫টায় শুরু হয়ে উৎসব রাত ৯টা পর্যন্ত চলবে বলে জানান আয়োজকরা। তাহলে আর কী? প্রস্তুতি নিন মনে মনে! সফল করে তুলুন নবান্ন উৎসবকে।

শেয়ার করে সঙ্গে থাকুন, আপনার অশুভ মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়। আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক গণঅধিকার'কে জানাতে ই-মেইল করুন- dailyganoadhikar@gmail.com আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।

দৈনিক গণঅধিকার'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

© ২০২১ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। দৈনিক গণঅধিকার | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বে-আইনি, ডেভোলপ ও ডিজাইন: DONET IT