ঢাকা, বৃহস্পতিবার ১৩ মে ২০২১, ৩০শে বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

পিআইডি এর নিয়ম অনুসারে আবেদিত

বায়ান্ন বাজার তিপ্পান্ন গলি

প্রকাশিত : 09:30 AM, 30 April 2021 Friday

গণঅধিকার নিউজ ডেস্কঃ

তরমুজের কথাই আগে হোক। গ্রীষ্মের গরমে রসালো এ ফলের তুলনা হয় না। প্রতিবছর এ সময় বাজার ভরে ওঠে তরমুজে। তবে এবার যেসে গরম নয়। একটা অসহনীয় অবস্থা চলছে। ‘দারুণ অগ্নিবাণে রে হৃদয় তৃষায় হানে রে/রজনী নিদ্রাহীন, দীর্ঘ দগ্ধ দিন…।’ দীর্ঘ দগ্ধ দিন অতিক্রম করছে রাজধানীবাসী। বৈশাখের খড়তাপে টেকা দায় হয়ে গেছে। গত রবিবারের কথাই যদি বলি, সাত বছরের তাপমাত্রা বৃদ্ধির রেকর্ড ওই দিন ভেঙ্গে যেতে দেখেছি আমরা। দেশের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা উঠে গিয়েছিল ৪১ দশমিক ২ ডিগ্রী সেলসিয়াসে। একই দিন রাজধানীর সর্বোচ্চ তাপমাত্রা উঠেছিল ৩৯ দশমিক ৫ ডিগ্রী সেলসিয়াস পর্যন্ত। এখনও গরমাগরম অবস্থা। ক্লান্তশ্রান্ত মানুষ দু/এক টুকরো তরমুজ মুখে দিয়ে শীতল হওয়ার চেষ্টা করছেন। তার চেয়ে বড় কথা, সারাদিন পানাহার থেকে বিরত থাকার পর ইফতারের টেবিলে তরমুজটা কমবেশি রাখতে চাইছেন সবাই। আর এ সুযোগেই রাজধানীতে তৎপর হয়েছে অসাধু ব্যবসায়ীরা। নানা ছলচাতুরি করে দাম বাড়িয়ে চলেছে তারা। দাম বাড়ানোর প্রক্রিয়াটি এখন বেশ আলোচনায়। জানা যাচ্ছে, কৃষকদের কাছ থেকে পাইকারি দরে কেনা তরমুজ বিক্রি করা হচ্ছে কেজি দরে। বেশি মুনাফার লোভে অভিনব এই প্রতারণার আশ্রয় নিচ্ছে মধ্যস্বত্বভোগীরা। হঠাৎ কেজিদরে তরমুজ বিক্রি হতে দেখে অনেক ক্রেতাই ত্যক্তবিরক্ত। কেউ কেউ তো বলছেন, বাপ জনমে এমন কা- দেখিনি। তরমুজ কেজিদরে বিক্রি হয় নাকি? বাস্তবে তা-ই হচ্ছে। বৃহস্পতিবার ফার্মগেটের একটি ফলের বাজারে কিছু সময় দাঁড়িয়ে দেখা গেল, ক্রেতার প্রায় সবাই পিস হিসেবে তরমুজ কিনতে এসেছেন। কিন্তু তাদের পছন্দ করা তরমুজ উঠে যাচ্ছিল আপেল, আঙুর মাপার মেশিনে। ছোট্ট মেশিনে ইয়া বড় তরমুজ গড়াগড়ি খাচ্ছিল। কী আর করা? বাধ্য হয়ে গড়াগড়ি খাওয়া তরমুজ কিনে বাড়ি ফিরছিলেন ক্রেতা। প্রতিকেজি তরমুজ বিক্রি হচ্ছিল ৫৫ থেকে ৬৫ টাকায়। আরেকটু ভালমানের যেগুলো ৬৫ থেকে ৭০ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছিল। মোশরফ নামের এক ক্রেতা বড় আকারের (১৩ কেজি) একটি তরমুজ কিনেন ৬৫০ টাকায়। দাম বেশি হওয়ায় কোন কোন এলাকায় তরমুজ অর্ধেক কেটে বিক্রি করা হচ্ছে। একইদিন শান্তিনগরে এক ক্রেতা অর্ধেক তরমুজ কিনেছিলেন বটে। রাগ সামলাতে পারছিলেন না। তার প্রশ্ন, এর পর কি বেশি লাভের আশায় কাঁঠালও ওজন করে বিক্রি করা হবে? ডাব? ডাবও ওজন করবে বিক্রেতারা? অবশ্য বিষয়টি সব মহলে আলোচিত হওয়ায় ব্যবস্থা গ্রহণও শুরু হয়ে গেছে। পাইকারি দরে কিনে কেজিদরে তরমুজ বিক্রি করা অসাধু ব্যবসায়ীদের জরিমানা করার খবর পাওয়া যাচ্ছে। এখন দেখার বিষয়, সামনের দিনগুলোতে কী হয়। কিছু কি হবে?

সহনীয় মাত্রার চেয়ে তিনগুণ শব্দদূষণ ॥ ঢাকায় শব্দদূষণ এখন চরমে। সহনীয় মাত্রার চেয়ে তিনগুণ। বুধবার আন্তর্জাতিক শব্দ সচেতনতা দিবসে সামনে এলো এমন তথ্য। এক কর্মশালায় জানানো হলো, প্রতিনিয়ত অসচেতনতাবশত এবং অকারণে ঘরে এবং ঘরের বাইরে শব্দদূষণ করা হচ্ছে। যানবাহনের অযথা হর্ন বাজানো, নির্মাণকাজে সৃষ্ট শব্দ, বিভিন্ন সামাজিক, রাজনৈতিক, ধর্মীয় অনুষ্ঠানে মাইক ও সাউন্ড সিস্টেমের মাধ্যমে সৃষ্ট শব্দে প্রতিনিয়ত দূষণ হচ্ছে। কর্মশালায় সতর্ক করে দিয়ে বলা হলো, উচ্চ শব্দ কম সময়ের জন্য হলেও তা শ্রবণশক্তির জন্য ক্ষতিকর। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার মতে, ১ দশমিক ১ বিলিয়ন মানুষ (১২-৩৫ বছর বয়সী) অত্যধিক শব্দযুক্ত বিনোদনমূলক কর্মকা-ে যুক্ত থাকার কারণে শ্রবণশক্তি হ্রাস হওয়ার ঝুঁকিতে রয়েছে। মানসম্মত জীবনযাপনের লক্ষ্যে শব্দদূষণের বিভিন্ন ক্ষতিকর প্রভাব সম্পর্কে নিজে সচেতন হওয়ার পাশাপাশি অন্যকেও সচেতন করতে সবাইকে আন্তরিক হওয়ার আহ্বান জানানো হলো কর্মশালা থেকে।

বৃষ্টির জন্য চেয়ে থাকা ॥ সেই কবে থেকে একটু বৃষ্টির জন্য আকাশের পানে চেয়ে আছে রাজধানীবাসী! গরমে প্রাণ যায়। বৃষ্টি নামলে স্বস্তি। সে আর হয় না। হচ্ছিল না। এবং অতঃপর বুধবার রাতে একটু আশা জেগেছিল। হঠাৎই ঝড়োহাওয়া। বৃষ্টির আভাস। অনেকেই বাসাবাড়ির দরজা-জানালা খুলে দিয়েছিলেন। ঘরটা একটু শীতল হোক। হয়েছিলও বটে। তবে ঝড় যতটা, সে তুলনায় বৃষ্টি ছিল অল্প। বারান্দাটাও পুরোপুরি ভিজেনি। এর পরও তাপমাত্রা কিছুটা কমেছে। আবহাওয়া অধিদফতর অবশ্য আশার বাণী শুনিয়ে বলছে, বৃষ্টির পরিমাণ সামনের দিনগুলোতে বাড়বে। মে মাসের প্রথম সপ্তাহে বৃষ্টি বেড়ে তাপমাত্রা কমে আসবে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদফতর।

শেয়ার করে সঙ্গে থাকুন, আপনার অশুভ মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়। আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক গণঅধিকার'কে জানাতে ই-মেইল করুন- dailyganoadhikar@gmail.com আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।

দৈনিক গণঅধিকার'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

© ২০২১ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। দৈনিক গণঅধিকার | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বে-আইনি, ডেভোলপ ও ডিজাইন: DONET IT