ঢাকা, শুক্রবার ২২ জানুয়ারি ২০২১, ৯ই মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

পিআইডি এর নিয়ম অনুসারে আবেদিত

বাসে আগুন সন্ত্রাসের কারিগরদের ক্লু খুঁজছে গোয়েন্দারা

প্রকাশিত : 11:28 AM, 16 November 2020 Monday

গণঅধিকার নিউজ ডেস্কঃ

হঠাৎ একযোগে প্রায় একই সময়ে রাজধানী নয় বাসে অগিসংযোগের মাধ্যমে নাশকতা ও নৈরাজ্য সৃষ্টির নেপথ্যে কারা আছে তার ক্লু উদঘাটন করছে গোয়েন্দা সংস্থা। অগ্নি সন্ত্রাসের ঘটনায় বৃহৎ দুই রাজনৈতিক দল একে-অপরকে দায়ী করে উত্তপ্ত বক্তব্য দিলেও এই ঘটনা রাজনৈতিক এবং কোন একটি দল বেনিফিসিয়ারি। প্রশ্ন উঠেছে, বেনিফিসিয়ারি বা লাভবান কোন দলটি? বিএনপির একজন ভাইস চেয়ারম্যানের সঙ্গে একজন নির্বাহী সদস্য এক নেত্রীর ফাঁস হওয়া ফোনালাপ, সিসি টিভির ক্যামেরায় ফুটেজ, নাশকতা নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছাত্রদল ও যুবদলের নেতাকর্মীদের উল্লেখ করা পোস্টের ঘটনায় কারা কিভাবে ঘটিয়েছে তার পরিষ্কার। দেশে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি অবনতি ঘটানো, নৈরাজ্য ও বিশৃঙ্খলা সৃষ্টির উদ্দেশ্যে পূর্ব পরিকল্পিত নীলনক্সা অনুযায়ী অগ্নি সন্ত্রাসের ঘটনা ঘটানো হয়েছে। এই অগ্নিকাণ্ডের ইন্ধনদাতা হিসেবে বিএনপির কয়েজন হাই প্রোফাইলের নেতা নজরদারিতে আছে এবং যে কোন সময়ে গ্রেফতার হতে পারে বলে গোয়েন্দা সংস্থার দাবি।

গোয়েন্দা সংস্থার সূত্রে জানা গেছে, ২০১৪ সালে জাতীয় নির্বাচনের আগে-পরে যেভাবে বাসে আগুন দিয়ে নাশকতা সৃষ্টি করা হয়েছিল, ঠিক সেই একই কায়দায় রাজধানীতে বাসে আগুন দেয়া হয়েছে। বাসে আগুন দেয়ার জন্য দুর্বৃত্তরা গানপাউডার ব্যবহার করেছে। আইনশৃঙ্খলার অবনতি ও সহিংসতার উদ্দেশ্যেই বাসে আগুন দেয়া হয়েছে। এটি অস্থিতিশীল পরিস্থিতি সৃষ্টির জন্য নাশকতামূলক তৎপরতা। পুরনো রূপে অস্থিরতা রাজনীতিতে। অনিরাপদ কর্মসূচী ঘোষণা। গ্রেফতার-মামলায়ও অর্ধবছরের পূর্বের কৌশল। আইনশৃঙ্খলার অবনতি নিয়েও প্রশ্ন। ‘আগুন জ্বালাও’, ‘জ্বালাও পোড়াও’ স্লোগানে বাস পোড়ার দৃশ্যে অগ্নিবোমায় ফের মৃত্যু আতঙ্কের পুনরাবৃত্তি।

গোয়েন্দা সংস্থার সূত্রে জানা গেছে, ২০১৫ সালে টানা ৯২ দিনের নজিরবিহীন অগ্নিসন্ত্রাস, পেট্রোল বোমা, গান পাউডার সহিংস আন্দোলনের নামে গত সাড়ে পাঁচ বছর রাজপথে আন্দোলন করেনি বিএনপি। ২০১৮ সালে খালেদা জিয়া কারাবন্দী হলেও মাঠে নামেনি দলটির নেতাকর্মী সমর্থকেরা। অথচ সেই নেতাকর্মীরাই ঢাকা-১৮ আসনের উপ-নির্বাচনে ‘ব্যাপক কারচুপির’ অভিযোগ তুলে রাজধানীজুড়ে বিক্ষোভ করেছে! বিক্ষোভ চলাকালে রাজধানীর সাত স্থানে একযোগে গণপরিবহনে অগ্নি সংযোগের ঘটনা ঘটেছে।

শেয়ার করে সঙ্গে থাকুন, আপনার অশুভ মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়। আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক গণঅধিকার'কে জানাতে ই-মেইল করুন- dailyganoadhikar@gmail.com আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।

দৈনিক গণঅধিকার'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

© ২০২১ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। দৈনিক গণঅধিকার | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বে-আইনি, ডেভোলপ ও ডিজাইন: DONET IT