ঢাকা, শনিবার ২৩ অক্টোবর ২০২১, ৮ই কার্তিক, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

পিআইডি এর নিয়ম অনুসারে আবেদিত

ফেসবুকের সাবেক কর্মীর অভিযোগ ‘মিথ্যা’, দাবি জাকারবার্গের

প্রকাশিত : 09:37 PM, 6 October 2021 Wednesday

গণঅধিকার নিউজ ডেস্কঃ

ফেসবুকের সাবেক কর্মী ফ্রান্সেস হাউগেনের অভিযোগ প্রত্যাখ্যান করেছেন ফেসবুকের প্রতিষ্ঠাতা মার্ক জাকারবার্গ। তিনি বলেছেন, মানুষের নিরাপত্তা এবং মঙ্গলের চেয়ে মুনাফার প্রতি ফেসবুকের নজর বেশি বলে যে অভিযোগ করা হয়েছে তা সঠিক নয়।

ফেসবুকের সাবেক কর্মী ফ্রান্সেস হাউগেনের অভিযোগ, ফেসবুক ও তাদের অ্যাপগুলো শিশুদের ক্ষতি করছে। একই সঙ্গে বিভেদ বাড়ানোর পাশাপাশি দুর্বল করে দিচ্ছে আমাদের গণতন্ত্রকে।

যুক্তরাষ্ট্রের সিনেটের একটি কমিটির কাছে দেওয়া বক্তব্যে ফেসবুকের সাবেক এ কর্মী এসব অভিযোগ করেন। খবর বিবিসির।

শুনানিতে ফ্রান্সেস হাউগেন বলেন, ফেসবুক ও ইনস্টাগ্রামের কর্তাব্যক্তিরা জানেন যে, কীভাবে এগুলোকে আরও নিরাপদ করা যায়, কিন্তু তারা সেসব পদক্ষেপ নেননি। কারণ তারা জনগণের ভালোর চেয়ে নিজেদের মুনাফার প্রতি বেশি গুরুত্ব দিয়েছেন।

‘আমরা দেখেছি যে, ইন্টারনেট থেকে ফেসবুক কয়েক ঘণ্টার জন্য বন্ধ হয়ে গিয়েছিল। আমি জানি না সেটি কীভাবে হয়েছে, কিন্তু পাঁচ ঘণ্টার জন্য হলেও ফেসবুক তাদের বিভক্তি ছড়াতে পারেনি, গণতন্ত্রকে দুর্বল করতে পারেনি এবং নারী ও শিশুদের তাদের শরীর নিয়ে নেতিবাচক ধারণা তৈরি করতে পারেনি’, যোগ করেন হাউগেন।

যদিও ফেসবুকের প্রতিষ্ঠাতা মার্ক জাকারবার্গ বলছেন ভিন্ন কথা।

জাকারবার্গের মতে, সম্প্রতি ফেসবুক সম্পর্কে প্রচার-প্রচারণা একটি ‘ভুল চিত্র’ এঁকেছে। আমরা সবসময় নিরাপত্তা, মঙ্গল ও মানসিক স্বাস্থ্যের বিষয়ে গুরুত্ব দিই।

ফেসবুকে দেওয়া এক পোস্টে জাকারবার্গ বলেন, অনেক দাবির কোনো মানেই হয় না। যদি আমরা গবেষণার ফলকে অবহেলাই করতে চাইতাম, তা হলে কি আমরা এ ধরনের একটি গুরুত্বপূর্ণ ইস্যু বোঝার জন্য গবেষণা করতাম? যদি আমরা ক্ষতিকর কনটেন্টের বিষয়ে লড়াই না করতাম, তা হলে কি আমরা অন্য যে কোনো প্রতিষ্ঠানের তুলনায় এটি ঠেকাতে এত কর্মী নিয়োগ করতাম? আমাদের চেয়ে কি কেউ এত বেশি কর্মী এই কাজে নিয়োগ দিয়েছে?’

জাকারবার্গ বলেন, আমরা যা কিছু তৈরি করছি, সেখানে শিশুরা যাতে নিরাপদ থাকে এবং তাদের জন্য ক্ষতিকর না হয়, এটি আমার কাছে খুবই গুরুত্বপূর্ণ। আমি ব্যক্তিগতভাবে এর পেছনে সময় দিয়েছি।

ফেসবুক বিশ্বের সবচেয়ে বেশি জনপ্রিয় সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম। প্রতিষ্ঠানটির দেওয়া তথ্যমতে, বর্তমানে মাসে ২৭০ কোটির মতো ব্যবহারকারী রয়েছে তাদের। লাখ লাখ ব্যবহারকারী ইনস্টাগ্রাম, হোয়াটসঅ্যাপের মতো কোম্পানির অন্যান্য পণ্য ব্যবহার করে।

শেয়ার করে সঙ্গে থাকুন, আপনার অশুভ মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়। আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক গণঅধিকার'কে জানাতে ই-মেইল করুন- dailyganoadhikar@gmail.com আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।

দৈনিক গণঅধিকার'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

এই বিভাগের জনপ্রিয়

© ২০২১ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। দৈনিক গণঅধিকার | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বে-আইনি, ডেভোলপ ও ডিজাইন: DONET IT