ঢাকা, বুধবার ২২ সেপ্টেম্বর ২০২১, ৭ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

পিআইডি এর নিয়ম অনুসারে আবেদিত

ফের অভাবে দিন কাটছে রানু মন্ডলের

প্রকাশিত : 07:42 PM, 28 September 2020 Monday

গণঅধিকার নিউজ ডেস্কঃ

সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছিলেন রানাঘাটের রানু মন্ডল। একটি গান ভাইরাল হতেই বিখ্যাত হয়ে যান তিনি। এরপর বদলে গিয়েছিল তার জীবন। রানাঘাট স্টেশন থেকে বলিউডের খ্যাতির মুখ পর্যন্ত দেখে নিয়েছিলেন তিনি।

বলিউড সঙ্গীত পরিচালক হিমেশ রেশমিয়া তাকে দিয়ে নিজের ছবিতে গান গাইয়েছিলেন। সংবাদমাধ্যমের পাতায় উঠে আসছিল রানু মন্ডলের নাম। কিন্তু ভাগ্যের চাকা ঘুরে যেতে সময় লাগে না। রাতারাতি খ্যাতির মুখ দেখে নিলেও তা হারিয়ে ফেলতেও বেশি সময় লাগেনি রানু মন্ডলের।

২০১৯ সালে নভেম্বরে হিমেশ রেশমিয়ার সুরে গান গেয়েছিলেন রানু মন্ডল। সেই গানটিও ভাইরাল হয়েছিল মুহূর্তে। কিন্তু তারপর থেকে বলিউডে আর কোনও ছবিতে তাকে গান গাইতে শোনা যায়নি। বরং খ্যাতি পাওয়ার পর থেকে একের পর এক বিতর্কে জড়িয়ে পড়েছিলেন তিনি।

জানা যায়, একসময় নিজের পুরনো বাড়ি ছেড়ে নতুন বাড়িতে গিয়েছিলেন রানু। কিন্তু করোনা প্যানডেমিকের মধ্যে সেই নতুন বাড়ি ছেড়ে দিয়ে ফের আগের জায়গায় ফিরতে হয় রানুকে। ফের অভাবের দিন শুরু হয় রানাঘাটের রানু মন্ডলের। একদিকে বলিউডে আর কোনও কাজ পাননি তিনি। আবার মহামারীর কারণে হাতে অন্য কোনও কাজও নেই তার। আর তাই আর্থিক অভাব আবার ঘিরে ধরেছে রানু মন্ডলকে।

তবে শুধু মহামারীর জন্য নয়। খ্যাতির চূড়ায় থেকে ফের পড়ে যাওয়ার কারণ হিসেবে তার তারকা সুলভ আচরণকে দায়ী করেন অনেকে। হিমেশ রেশামিয়ার সুরে গান রিলিজ হওয়ার পরে একটি ইভেন্টে রানু মন্ডলের সঙ্গে তার এক ভক্ত সেলফি তুলতে চান। সেই ভক্ত রানু মণ্ডলকে স্পর্শ করে ডেকেছিলেন। আর তাতেই বেজায় চটে যান রানাঘাটের তিনি। এই ঘটনার ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়। রানু মন্ডলের এমন উদ্ধত আচরণ মেনে নিতে পারেননি তার ভক্তরা।

এরকমই বেশ কয়েকটি ঘটনা ঘটার পর থেকে তার ভাবমূর্তি বদলে যেতে শুরু করে। খ্যাতির চূড়ায় থেকে নামিয়ে আনতে শুরু করেন তার ভক্তরাই। আর তাই এখন বেশ অভাবে দিন কাটছে রানু মন্ডলের। কিন্তু এই লকডাউনের মধ্যে নিজের প্রতিবেশীদের পাশে দাঁড়িয়েছিলেন রানু। নিজের এলাকায় যে সকল অভাবী মানুষ রয়েছেন তাদেরকে মহামারীর সময় বিভিন্ন জিনিস দিয়ে সাহায্য করেছিলেন তিনি।

শেয়ার করে সঙ্গে থাকুন, আপনার অশুভ মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়। আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক গণঅধিকার'কে জানাতে ই-মেইল করুন- dailyganoadhikar@gmail.com আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।

দৈনিক গণঅধিকার'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

© ২০২১ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। দৈনিক গণঅধিকার | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বে-আইনি, ডেভোলপ ও ডিজাইন: DONET IT