সোমবার ১৭ জানুয়ারি ২০২২, ৪ঠা মাঘ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

ফেন্সিখোর এমরানের শেল্টারে চলছে মাদক ব্যবসা॥ পুলিশ নিরব

প্রকাশিত : 06:33 PM, 8 July 2021 Thursday

গণঅধিকার নিউজ ডেস্কঃ

 

স্টাফ রিপোর্টারঃ সরকারের জিরো টলারেন্স ঘোষনায় যেখানে প্রশাসন নড়ে চড়ে বসেছেন, সেখানে সিদ্ধিরগঞ্জের গোদনাইল এনায়েতনগর এলাকায় ফেন্সিখোর এমরানের শেল্টারে চলছে মাদক ব্যবসা। অভিযোগ রয়েছে পুলিশের সাথে সখ্যতা গড়ে তোলে আশপাশ এলাকায় মাদকের অভয়ারন্য গড়ে তুলেছে সাংবাদিক নামধারি ফেন্সিখোর এমরান। এমরানের ফেন্সিডিল খাওয়ার ছবি ফেসবুকে ভাইরাল হওয়ার পরও পুলিশ কোন ব্যবস্থা নিচ্ছেনা।
জানা যায়, যেখানে মাদকে ভাসছে নারায়ণগঞ্জ। সেখানে পুলিশ প্রশাসন যে কঠোরতা দেখাচ্ছে কার্যত বাস্ততে তা প্রতিফলিত হচ্ছে না। বিভিন্ন সভা সমাবেশে পুলিশ সবসময় বলে থাকে আমরা মাদকের বিরুদ্ধে হার্ড লাইনে রয়েছি। অথচ বর্তমান করোনা পরিস্থিতিতে নারায়ণগঞ্জের বিভিন্ন পাড়া মহল্লায় দেদারছে পাওয়া যাচ্ছে ইয়াবা, ফেনসিডিল ও গাঁজা। করোনাকে পুঁজি করে চড়া দামে মাদক ব্যবসায়ীরা মাদক বিক্রি করছে। ফলে উঠতি বয়সের তরুন-তরুনী ও কিশোররা বিপদগামী হয়ে পড়ছে। বাড়ছে কিশোর গ্যাংয়ের মতো অপরাধ। আর এই কিশোর গ্যাং এর আশ্রয় প্রশ্রয় দাতা সাংবাদিক নামধারী ফেন্সিখোর এমরান। তার বিরুদ্ধে রয়েছে বিস্তর অভিযোগ। এলাকাবাসী ছিঃ ছিঃ করছে আর বলছে এই ধরনের নেশা খোররা যদি সাংবাদিকতার মতো মহান পেশায় যদি আসে তাহলে সামাজিক যে অবক্ষয় দেখা দিয়েছে তার পূরণীয় নয়। এলাকাবাসী জানান, ফেন্সিখোর এমরান সাংবাদিকতার নামে অপসাংবাদিকতা ও অসামাজিক কার্যকলাপের আখড়া গড়ে তুলেছে। বিভিন্ন মাদকের স্পট থেকে উল্টো কিছু মাদক ব্যবসায়ীদের কাছ থেকে ভয়ভীতি দেখিয়ে নিয়মিত মাসিক মাসোহারা নিচ্ছে। এনায়েতনগর ও তার আশপাশ এলাকায় এই মাদকের কারণে পথে ঘাটে ইভটিজিং সহ চুরি-ছিনতাই হচ্ছে। এলাকার বেশকিছু চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ীকে আবার অর্থেরও জোগান দিচ্ছে ফেন্সিখোর এমরান। এলাকাবাসী আরও জানায়, একজন ভালো মানুষ হিসেবে মোঃ আজিজুল্লাহ কাজীর যে সুনাম রয়েছিল সেই সুনাম নষ্ট করে দিল তারই কুলাঙ্গার ছেলে মাদক সেবী ও শেল্টার দাতা সাংবাদিক নামধারী এমরান হোসেন। অভিযোগ রয়েছে পুলিশের লোকজন এমরানের অফিসে নিয়মিত আসা যাওয়া করে এবং তৃপ্তির ঢেঁকুর নিয়ে যায়। অনদিকে সিদ্ধিরগঞ্জ থানা ওসি মশিউর রহমান মাদকের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণা করেছেন কিন্তু ফেন্সিখোর এমরানের বিরুদ্ধে এখনও পর্যন্ত সত্যতা যাচাইয়ে কোন তদন্ত বা তার বিরুদ্ধে কোন ব্যবস্থাই নিচ্ছে না বলে এলাকাবাসী অভিযোগ করেন। এলাকার মানুষজন পুলিশের প্রতি আস্থা হারিয়ে ফেলছে শুধু মাত্র এমরানের কারণে। কথায় আছে সাংবাদিক পুলিশ ভাই ভাই তথ্য দাতাদের রেহাই নাই। যার কারণে সচেতন মানুষ ভয়ে এমরানের বিরুদ্ধে তেমন কোন পদক্ষেপ নিতে পারছে না। এ ব্যপারে সিদ্ধিরগঞ্জ পুলিশ আন্তরিক হয়ে মাদকের বিরুদ্ধে কাজ করবে এবং ফেন্সিখোর এমরানকে আটক করে আইনের আওতায় নিয়ে আসবে বলে এলাকাবাসী মনে করেন। এদিকে অভিজ্ঞ মহল জেলা গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি) ও র‌্যাবের হস্তক্ষেপ কামনা করেন।

শেয়ার করে সঙ্গে থাকুন, আপনার অশুভ মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়। আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক গণঅধিকার'কে জানাতে ই-মেইল করুন- dailyganoadhikar@gmail.com আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।

দৈনিক গণঅধিকার'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

এই বিভাগের জনপ্রিয়

© ২০২২ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। দৈনিক গণঅধিকার | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বে-আইনি, ডেভোলপ ও ডিজাইন: DONET IT