ঢাকা, বৃহস্পতিবার ০৩ ডিসেম্বর ২০২০, ১৯শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

পিআইডি এর নিয়ম অনুসারে আবেদিত

দেশে সম্প্রচার বন্ধ ভারতীয় স্টার গ্রুপের ৭ চ্যানেল

প্রকাশিত : 11:53 AM, 9 November 2020 Monday

গণঅধিকার নিউজ ডেস্কঃ

বাংলাদেশে যাদু ভিশন লিমিটেড পরিবেশিত ভারতীয় স্টার গ্রুপের ৭ চ্যানেল স্টার জলসা, স্টার প্লাস, জলসা মুভিজ, স্টার গোল্ড, ন্যাশানাল জিওেগ্রাফিক চ্যানেল, ন্যাশানাল জিওগ্রাফিক ওয়াইল্ড ও স্টার ভারত বন্ধ করে দিয়েছে ক্যাবল অপারেটরস এ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ কোয়াব) ঐক্য পরিষদ।

সম্প্রতি যাদু ভিশন লিমিটেড কর্তৃক নিজেদের ক্যাবল নেটওয়ার্ক ব্যবসা ছড়িয়ে দিতে দেশের বিভিন্ন জায়গায় ক্যাবল অপারেটর নিয়োগ করে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টির চেষ্টা করছে এই প্রতিবাদে এক সংবাদ সম্মেলন করে কোয়াব।

এতে এই সমস্যা সমাধানে আলাপ আলোচনার জন্য ৪ নবেম্বর পর্যন্ত সময় বেঁধে দেয় পরিষদ। কিন্তু যাদু ভিশন লিমিটেড থেকে কোন ইতিবাচক সাড়া না পেয়ে ৪ নবেম্বর সন্ধ্যা থেকে স্টার গ্রুপের সব চ্যানেল প্রচার বন্ধ করে দেয় কোয়াব।

এ সম্পর্কে ক্যাবল অপারেটরস এ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (কোয়াব) ঐক্য পরিষদদের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি এস এম আনোয়ার পারভেজ জনকণ্ঠকে বলেন, আমরা ৪ নবেম্বর পর্যন্ত সময় বেঁধে দিয়েছিলাম।

এই তারিখের মধ্যে আমাদের সাথে একটা আলাপ-আলোচনা করা জন্য। যদি তারা ব্যাবসায়িক মনোভাবাপন্ন থাকত, ব্যবসাটা আমাদের সঙ্গে মিলে-মিশে করতে চাইত তাহলে তারা আমাদের সঙ্গে আলোচনায় বসত। তাদের সঙ্গে ১০ বছর ধরে ব্যবসায়িক সম্পর্ক আমাদের।

কিন্তু তারা সে লাইনেই হাঁটে নাই। তারা যখন ৪ নবেম্বর পর্যন্ত আমাদের সঙ্গে আসে নাই। এ কারণে ৪ নবেম্বর সন্ধ্যা ৬টা থেকে সারা বাংলাদেশের ৮০ ভাগ অপারেটররা স্টার গ্রুপের চ্যানেল বন্ধ করে দিয়েছে। আমরা এখন বন্ধের মধ্যেই আছি।

এসএম আনোয়ার পারভেজ আরও বলেন, আমরা দীর্ঘ ১০ বছর ধরে প্রয়াত মেয়র আনিসুল হকের ছেলের মালিকানাধীন যাদু ভিশন লিমিটেডের সঙ্গে নিরবিচ্ছিন্নভাবে ব্যবসা পরিচালনা করে আসছি। বিগত কয়েক মাস ধরে প্রতিষ্ঠানটি নিয়োগকৃত দেশি-বিদেশি কর্মচারীদের ক্যাবল অপারেটরদের সঙ্গে অসৌজন্যমূলক আচরণ সহ্যসীমা অতিক্রম করেছে। করোনাকালের মধ্যে ছোটখাটো বিভিন্ন অজুহাতে তাদের পরিবেশিত পে-চ্যানেল বন্ধ করে দিচ্ছে। আসলে তারা এসবের মাধ্যমে তাদের মালিকানাধীন ক্যাবল টিভি নেটওয়ার্ক (যাদু ডিজিটাল) ব্যবসাটি বিস্তৃত করার অপপ্রয়াশে লিপ্ত আছে।

এ বিষয়ে কোয়াব এক সংবাদ সম্মেলন করেছে রাজধানীর এক অভিজাত হোটেলে রবিবার বিকেলে।

সংবাদ সম্মেলনে কোয়াবের নেতারা বলেন, স্টার গ্রুপের পে চ্যানেল সমুহের বাংলাদেশের পরিবেশক যাদু ভিশন লিমিটেড কর্তৃক ক্যাবল টিভি অপারেটরদের সাথে অব্যাবসায়িক আচরণ, অপারেটর কর্তৃক টাকা পরিশোধের প্রাপ্তি রশিদ প্রদানে অসহযোগিতা, সম্পূরক শুল্কের রশিদ প্রদানে অসঙ্গতি এবং বিভিন্নভাবে ক্যাবল টিভি অপারেটরদের হয়রানির প্রতিবাদে ২৮ অক্টোর এক সংবাদ সম্মেলন করা হয়।

এতে ক্যাবল অপারেটরদের সমস্যা সমাদানের লক্ষে আলোচনার পথ উন্মুক্ত রেখে ৪ নবেম্বর পর্যন্ত সময় প্রদান করা হয়। কিন্তু অত্যান্ত দু:খজনক যে আমাদের দেয়া সময় অনুযায়ী সমস্যাসমূহ নিরসনের জন্য যাদু ভিশন কর্তৃক কোন প্রকার পদক্ষেপ গ্রহন না করায় ৪ নবেম্বর সন্ধ্যা ৬টা থেকে যাদু ভিশন পরিবেশিত ৭টি চ্যানেল সারা বাংলাদেশের অধিকাংশ ক্যাবল অপারেটর অনির্দিষ্ট কালের জন্য সম্প্রচার থেকে বিরত রয়েছে।

যাদু ভিশন সমস্যা সমাদানের পথে না হেটে তাদের নিয়োজিত একজন ভিনদেশী কর্মচারী বাংলাদেশের একটি ব্যবসায়িক সংগঠন নিয়ে এবং আপামর ক্যাবল অপারেটরদের বিরুদ্ধে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বিভিন্ন ধরনের আপত্তিকর ও মিথ্যা তথ্য প্রদান করছে যা আমাদের জন্য অনভিপ্রেত ও অসম্মানজনক। তার এ ধরনের কর্মকান্ডের জন্য সমগ্র ক্যাবল অপারেটরগন তীব্র প্রতিবাদ ও নিন্দা জ্ঞান করছি।

এ নিয়ে জাদু ভিশন লিমিটেডের পক্ষ থেকে একটি বিবৃতিতে বলা হয় বর্তমানে দেশে ৬০০ এর উপর বৈধ ক্যাবল অপারেটর রয়েছে, যাদের মধ্যে অল্প কিছু সংখ্যক কেবল অপারেটর নিজেদের কোয়াব ঐক্য পরিষদ বলে পরিচয় দিয়ে বিভিন্ন সময়ে অবাঞ্ছিত কিছু বিষয় সামনে নিয়ে এসে নিজেদের আধিপত্য প্রমাণের চেষ্টা করছে।

শেয়ার করে সঙ্গে থাকুন, আপনার অশুভ মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়। আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক গণঅধিকার'কে জানাতে ই-মেইল করুন- dailyganoadhikar@gmail.com আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।

দৈনিক গণঅধিকার'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

© ২০২০ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। দৈনিক গণঅধিকার | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বে-আইনি, ডেভোলপ ও ডিজাইন: DONET IT