মঙ্গলবার ২৪ মে ২০২২, ১০ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

দেশে চলমান সংকট মুহুর্তে পুলিশের আচরন কেন যেন বেপরোয়া হচ্ছে!!!

প্রকাশিত : 03:58 PM, 25 June 2021 Friday

গণঅধিকার নিউজ ডেস্কঃ

মুজিববর্ষের অঙ্গিকার, পুলিশ হবে জনতার, এই শ্লোগানের আদলে দেশে চলমান করোনা বিপর্যয়ে রাজশাহীতে চলছে পুলিশি হেনস্থা, ছাড় পাচ্ছে না মিডিয়াকর্মীরাও ।বিগত কয়েকদিনের তথ্য নিলেই বেরিয়ে আসবে পুলিশের সকল ঘটনা। ১২ জুন ( শনিবার) নগরীর বহরমপুর মোড়ে দৈনিক গনধ্বনি পত্রিকার সম্পাদক ও রাজশাহী সাংবাদিক ঐক্য পরিষদের আহ্বায়ক কমিটির সদস্য সচিব ইয়াকুব সিকদারকে পুলিশি হেনস্তার শিকার হতে হয়, যা খুবই দুঃখজনক। ইয়াকুব সিকদার জরুরী কাজে বাসা থেকে রিক্সা যোগে পত্রিকা অফিসে যাচ্ছিলেন। পথিমধ্যে রাজপাড়া থানায় কর্মরত এসআই নুরুলের রোষানলে পড়েন। সবশেষে পায়ে হেঁটে অফিস আসতে হয়। এরপর ১৩ জুন (রবিবার) কামরুজ্জামান চত্বরে ( রেলগেটে) বিকালে দৈনিক উপচার পত্রিকার ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক ও সাংবাদিক ঐক্য পরিষদ আহ্বায়ক কমিটির সদস্য নুরে ইসলাম মিলনকে হেনস্থার শিকার হতে হয়। এরপর ২৪ জুন বৃহস্পতিবার বিকালে রাজশাহী থেকে পুঠিয়ার দিকে সংবাদ সংগ্রহের উদ্দেশ্য যাচ্ছিলেন রাজশাহী মডেল প্রেসক্লাবের সভাপতি ও উত্তরবঙ্গ প্রতিদিনের সত্বাধিকারী এবং রাজশাহী সাংবাদিক ঐক্য পরিষদের আহ্বায়ক কমিটির সদস্য এমএ হাবিব জুয়েল। কিন্তু নগরীর তালাইমারি মোড়ে পুলিশের রোষানলে পড়ে এমএ হাবিব জুয়েল। মটর সাইকেল নিয়ে যাওয়ার পথে তালাইমারি মোড়ে গাড়ি থামতে বলে কুতুবুল নামের পুলিশ লাইনের একজন হাবিলদার -অশ্লীল ভাষায় – “এই বাইন….. গাড়ি থামা, না হলে পা কেটে ফেলব” বলে গালি গালাজ করতে করতে গাড়ির কাছে ছুটে আসে। এরপর হাবিব জুয়েল গালি গালাজের প্রতিবাদ করলে, অপর প্রান্ত থেকে ছুটে এসেই ধাক্কা মারে মতিহার থানায় কর্মরত এসআই সেলিম। পরবর্তিতে নিজের সম্মান নিয়ে তিনি চলে যান। এখন প্রশ্ন, একজন সাংবাদিকের সাথেই যদি এমন আচরন হয়, তাহলে সাধারনের অবস্থান কোথায়? একজন সচেতন মানুষ হিসেবে বলতেই হচ্ছে গুটি কয়েক পুলিশ অফিসারের অস্বাদাচারন, অপকর্ম ও দুর্নীতির কারনে পুরো পুলিশ বাহিনীর বদনাম হচ্ছে। এটা শুধু পুলিশ বাহিনীর বদনাম নয়, এর দায় সরকারকেও নিতে হয়। তাই উর্ধ্বতন মহলের প্রতি দৃষ্টি আকর্ষন করছি, সময় থাকতে এই অশালীন ও দুর্নীতিবাজ কর্মকর্তার লাগাম টানতে হবে। নাহলে আগামীতে পুলিশের প্রতি জনগনের আস্থা ও শ্রদ্ধা হারাবে। আরও একটা বিষয় না বললে হচ্ছে না, বিশ্বের করোনা মহামারির গতিবেগ যেন থামছেই না। বিশ্বের অন্যান দেশের ন্যায় বাংলাদেশও শুরু থেকেই অনেক সচেতন এবং প্রতিরোধ করেছে। যেন দেশের মানুষ সুস্থ ও স্বাভাবিক থাকতে পারে। এই কৃতিত্ব অবশ্য দেশের সরকারের। সরকার দেশের জনগনকে করোনা থেকে বাঁচানোর যুদ্ধে প্রানপন চেষ্টা করে চলেছেন। কিন্তু দেশের জনগন অর্থনৈতিক ভাবে পিছিয়ে পড়ছে। ফলে দেশে নিরব হাহাকার বিরাজমান। তাই সরকারের উচিত হবে জনগনের সার্বিক দিক চিন্তা করে আগামীর সিদ্ধান্ত নেওয়া।

শেয়ার করে সঙ্গে থাকুন, আপনার অশুভ মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়। আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক গণঅধিকার'কে জানাতে ই-মেইল করুন- dailyganoadhikar@gmail.com আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।

দৈনিক গণঅধিকার'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

এই বিভাগের জনপ্রিয়

© ২০২২ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। দৈনিক গণঅধিকার | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বে-আইনি, ডেভোলপ ও ডিজাইন: DONET IT