মঙ্গলবার ২৫ জানুয়ারি ২০২২, ১২ই মাঘ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

দুই মণ আমে দেড় কেজি গরুর মাংস!

প্রকাশিত : 05:44 AM, 27 June 2021 Sunday

গণঅধিকার নিউজ ডেস্কঃ

শিবগঞ্জে এক কেজি মাংস কিনতে বিক্রি করতে হচ্ছে প্রায় দুই মণ আম! সরেজমিনে মাংসের বাজার ঘুরে কসাই ও ক্রেতাদের সঙ্গে আলাপ করে জানা গেছে, গরুর এক কেজি মাংসের দাম ৫৫০ টাকা, খাসির এক কেজি মাংসের দাম ৭৫০ টাকা। অন্যদিকে উত্তরবঙ্গের বৃহত্তম কানসাট আমবাজারে বিক্রেতা ও ক্রেতারা জানিয়েছেন, ফজলি আমের দাম মাত্র ৪০০ টাকা মণ।

কানসাটের আমবিক্রেতা শেরপুর ভাণ্ডারের লাল্টু জানান, নিজ বাগানের এক ভ্যানে চার মণ ফজলি আম নিয়ে সকালে এসেছি। বেলা ৩টা পর্যন্ত আম বিক্রি করতে পারিনি। দাম চেয়েছি ৫৫০ টাকা মণ। ক্রেতা বলছে ৪০০ টাকা মণ।
তিনি আরও জানান, চার মণ আমের পাকা ওজন দিতে গিয়ে দিতে হচ্ছে পাঁচ মণ আট কেজি আম। অর্থাৎ, ৫২ কেজিতে মণ। তারপর আবার মহরিল (হিসাবকর্মী) নিচ্ছেন মণপ্রতি একটি, কয়েলি বাবদ নিচ্ছে মণপ্রতি একটি, আবার শ্রমিকেরা নিচ্ছে ভ্যানপ্রতি প্রায় দুই কেজি করে। সব মিলিয়ে চার মণ আমের পাকা ওজনে দিতে হচ্ছে পাঁচ মণ ১২ কেজি।
আমবিক্রেতা জেম আক্ষেপ করে বলেন, ‘হায় রে আম। যার দাম এতই কম যে বাজারে ফজলি আম দুই মণ বিক্রি করে বড়জোর দেড় কেজি গরুর মাংস কেনা যায়।’ শুধু জেম নন, জেলার হাজার হাজার আমচাষি ও ব্যবসায়ীদের একই অবস্থা। কানসাট বাজার এলাকার প্রায় ৭৫ বছরের জনৈক মুরব্বি বলেন, ‘আমার জীবনে আমের এত বেহাল দশা কোনো দিন দেখিনি।

শেয়ার করে সঙ্গে থাকুন, আপনার অশুভ মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়। আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক গণঅধিকার'কে জানাতে ই-মেইল করুন- dailyganoadhikar@gmail.com আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।

দৈনিক গণঅধিকার'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

© ২০২২ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। দৈনিক গণঅধিকার | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বে-আইনি, ডেভোলপ ও ডিজাইন: DONET IT