বুধবার ০৮ ডিসেম্বর ২০২১, ২৪শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

পিআইডি এর নিয়ম অনুসারে আবেদিত

তুরস্ককে ছাড়া শান্তি প্রক্রিয়া শুরু হতে পারে না ॥ আজারবাইজান

প্রকাশিত : 12:46 PM, 6 October 2020 Tuesday

গণঅধিকার নিউজ ডেস্কঃ

আজারবাইজানের প্রেসিডেন্ট ইলহাম আলিয়েভ বলেছেন, নাগার্নো-কারাবাখ নিয়ে যেকোনও শান্তি প্রক্রিয়ায় তুরস্ককে যুক্ত করতে হবে।

নাগার্নো কারাবাখ নিয়ে যখন আজারবাইজান ও আর্মেনিয়ার মধ্যে সংঘর্ষ ভয়াবহ আকার ধারণ করেছে তখন তিনি একথা বললেন।

তিনি বলেন, “শান্তি প্রক্রিয়া অবশ্যই শুরু করতে হবে। চিরদিনের জন্য যুদ্ধ চলতে পারে না। সেক্ষেত্রে শান্তি আলোচনা যত তাড়াতাড়ি শুরু করা যায় ততই ভালো কিন্তু সে আলোচনায় তুরস্ককে রাখতেই হবে।”

সোমবার তুরস্কের টিআরটি হাবের গণমাধ্যমকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে এসব কথা বলেন আজারবাইজানের প্রেসিডেন্ট। তিনি বলেন, তুরস্ক হচ্ছে আঞ্চলিক একটি বড় উদীয়মান শক্তি এবং দক্ষিণ ককেশাস অঞ্চলের দেশ। আঙ্কারার অবস্থান অন্যদের প্রতি সতর্কবার্তা বলেও মন্তব্য করেন আলিয়েভ।

সাক্ষাৎকারে আজারবাইজানের প্রেসিডেন্ট বলেন, তার দেশের সেনারা কারাবাখের বেশ কিছু এলাকা পুনরুদ্ধার করতে সক্ষম হয়েছে। এ অবস্থায় যুদ্ধবিরতি শুধুমাত্র তখনই সম্ভব হবে যখন আন্তর্জাতিক অঙ্গন থেকে বাকুকে এই নিশ্চয়তা দেওয়া হবে যে, নাগার্নো-কারাবাখ অঞ্চল থেকে ইয়েরেভান সম্পূর্ণভাবে সেনা প্রত্যাহার করে নেবে।

ইলহাম আলিয়েভ বলেন, “আমরা অন্য কোনও দেশের ভূমির প্রতি নজর দেইনি কিন্তু আমাদের ভূখণ্ড আমাদের হাতেই থাকতে হবে।”

এর আগে রবিবার জাতির উদ্দেশ্যে টেলিভিশনে দেওয়া ভাষণে আলিয়েভ প্রতিশ্রুতি ব্যক্ত করেছিলেন, সেনা প্রত্যাহারের ব্যাপারে আর্মেনিয়া সুস্পষ্ট সময়সীমা ঘোষণা না করা পর্যন্ত আজারবাইজান যুদ্ধবিরতি চুক্তিতে পৌঁছাবে না।

শেয়ার করে সঙ্গে থাকুন, আপনার অশুভ মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়। আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক গণঅধিকার'কে জানাতে ই-মেইল করুন- dailyganoadhikar@gmail.com আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।

দৈনিক গণঅধিকার'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

© ২০২১ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। দৈনিক গণঅধিকার | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বে-আইনি, ডেভোলপ ও ডিজাইন: DONET IT