রবিবার ২৮ নভেম্বর ২০২১, ১৪ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

পিআইডি এর নিয়ম অনুসারে আবেদিত

ঢাকা এখন ফাঁকা

প্রকাশিত : 06:05 PM, 13 May 2021 Thursday

গণঅধিকার নিউজ ডেস্কঃ

গত এক সপ্তাহ ধরে বিধিনিষেধের তোয়াক্কা না করে নগরবাসীর ব্যস্ততা ছিল কেনাকাটা আর গ্রামে ফেরার ব্যস্ততা। করোনা সংক্রমণের কারণে দূরপাল্লার বাস বন্ধ থাকলেও বিভিন্ন উপায়ে ঢাকা ছেড়েছে মানুষ। তবে ঈদের আগের দিনে রাজধানী শহরে নেই ব্যস্ততা, নেই কোলাহল। ঢাকার রাস্তা এখন ফাঁকা আর সুনসান নিরবতা।

বৃহস্পতিবার সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত রাজধানীর নিউমার্কেট, ধানমন্ডি, শাহবাগ, মতিঝিল, বিশ্বরোডসহ বেশকিছু এলাকা ঘুরে ফাঁকা ঢাকাই দেখা গেছে। সড়কে ব্যস্ততা নেই বললেই চলে। অন্যান্য দিনের তুলনায় সিএনজি চালিত অটোরিক্সা, রিক্সা, ব্যক্তিগত পরিবহন কম চলাচল করছে।

সুনসান নিরবতার মধ্যেও পুলিশ, ডাক্তার, গণমাধ্যমকর্মীসহ জরুরি সেবাদানকারী প্রতিষ্ঠানে কর্মরতদের বাইরে দেখা গেছে। মগবাজার এলাকায় বেসরকারি হাসপাতালে কর্মরত ইসরাত জাহান বলেন, ঈদে ছুটি পাইনি। ন হাসপাতালে ডিউটিতে যাচ্ছি। রাস্তায় আজ যানজট নেই বললেই চলে, খুব সহজেই চলে এলাম।

উত্তরা, গাবতলী ও মহাখালীতে ঘরমুখো কিছু মানুষকে দেখা গেছে। রাজধানী ঢাকার প্রবেশপথগুলোতে সকালে ভিড় থাকলেও বেলা বাড়ার সঙ্গে সবকিছু স্বাভাবিক হচ্ছে। গাবতলীতে কথা হয় আফজাল হোসেনের সঙ্গে। তিনি বলেন, পাবনা যাবো; তবে সরাসরি গাড়ি পাচ্ছি না। ভেঙ্গে ভেঙ্গে যাওয়ার পরিকল্পনা করছি।

এদিকে শপিংমলে কিছু সংখ্যক মানুষকে শেষ মুহূর্তের কেনাকাটায় ব্যস্ত দেখা গেছে। নিউমার্কেটে কেনাকাটা করতে আসা বিউটি বেগম বলেন, এবার ঈদে গ্রামের বাড়ি যাওয়া হয়নি। গেল কয়েকদিনে যা ভিড় ছিল। তাই কেনাকাটাই করতে আসিনি। এখনতো ফাঁকা, তাই প্রয়োজনীয় কিছু কেনাকাটা করতে এসেছি

শেয়ার করে সঙ্গে থাকুন, আপনার অশুভ মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়। আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক গণঅধিকার'কে জানাতে ই-মেইল করুন- dailyganoadhikar@gmail.com আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।

দৈনিক গণঅধিকার'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

© ২০২১ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। দৈনিক গণঅধিকার | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বে-আইনি, ডেভোলপ ও ডিজাইন: DONET IT