ঢাকা, মঙ্গলবার ২৬ অক্টোবর ২০২১, ১১ই কার্তিক, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

পিআইডি এর নিয়ম অনুসারে আবেদিত

ট্রাম্পের এখন অফুরন্ত অবসর নির্বাচনে হারার পর কি ট্রাম্প মেলানিয়াকেও হারাতে যাচ্ছেন * ফার্স্টলেডি কখনও চাননি ট্রাম্প নির্বাচনে জয়লাভ করুক * প্রবীণ বন্ধুদের সঙ্গে গল্প করেও কাটাতে পারেন সময়

প্রকাশিত : 07:12 PM, 9 November 2020 Monday

গণঅধিকার নিউজ ডেস্কঃ

দায়িত্ব পালনকালে একটু অবসর পেলেই গলফ খেলতে ফ্লোরিডার মার-এ-লাগোয় চলে যেতেন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। এছাড়া আরও একটি কাজ করার জন্য অনেক আলোচিত-সমালোচিত তিনি।

সেই কাজটা আর কিছুই নয়, কাজের ফাঁকে ফাঁকে একটার পর একটা টুইট করতেন। বলা যায় টুইটের ফাঁকে ফাঁকে কাজ করতেন।

এবারের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের সবচেয়ে কঠিন সময়ের মধ্যেও তার ব্যতিক্রম দেখা গেল না। একটু একটু করে যখন প্রতিদ্বন্দ্বী জো বাইডেনের কাছে হেরে যাচ্ছেন, তখনও গলফ খেলেছেন তিনি। পর্যবেক্ষকেরা বলছেন, খুব শিগগিরই দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি পাচ্ছেন ট্রাম্প। তখন আমোদ-প্রমোদ যা খুশি করার অফুরন্ত অবসর পাবেন তিনি।

প্রবাদ আছে, রোম যখন পুড়ছিল নীরো তখন বাঁশি বাজাচ্ছিলেন। যেন সেই ইতিহাসের পুনরাবৃত্তি হল ট্রাম্পের বেলায়। হোয়াইট হাউসে তার পতনের সংবাদে জনতা যখন উল্লাস করছিল, তখন তিনি গলফ খেলছিলেন! দ্বিতীয়বারের মতো যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হওয়ার ব্যাপারে বরাবরই আত্মবিশ্বাসী ছিলেন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প।

ভক্তদের মতে, তিনি কখনও হার মানতে শেখেননি। সিএনএনে প্রকাশিত এক ভিডিওতে দেখা যায়, বিজয় ঘোষণার পর বাইডেন সমর্থকরা হোয়াইট হাউসের সামনে জড়ো হয়ে উল্লাস করছেন ও গাড়ির হর্ন বাজাচ্ছেন। তবে সেসময় হোয়াইট হাউসে ছিলেন না ট্রাম্প।

ভিডিওতে দেখা যায়, ভার্জিনিয়ার স্টারলিংয়ের ক্লাবে তিনি গলফ খেলছেন। তার পরনে ছিল খেলার পোশাক। এক প্রতিবেদনে এএফপি বলেছে, চাইলে খুব শিগগিরই গলফ উপভোগ করার মতো প্রচুর সময় পাবেন।

প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হওয়ার অনেক আগে থেকেই যুক্তরাষ্ট্রের বিখ্যাত ও বর্ণাঢ্য ব্যক্তিদের অন্যতম ছিলেন ট্রাম্প। একজন ধনকুবের ব্যবসায়ী ও টিভি সেলেব্রিটি হিসেবে সব সময় চাইতেন আলোচনার লাইমলাইটে থাকতে। বিশ্লেষকরা বলছেন, হোয়াইট হাউস থেকে বিদায় নেয়ার পরও এটা চালিয়ে যেতে পারবেন তিনি। আর এজন্য হতে পারে একটা আত্মজীবনী লিখে ফেললেন কিংবা কাজ করতে পারেন বিভিন্ন দাতব্য কর্মকাণ্ডে।

শিগগিরই তার কাছ থেকে হোয়াইট হাউসের চাবির ছড়া নিয়ে নেয়া হবে। কিন্তু তার স্মার্টফোন আর টুইটারের পার্সওয়ার্ডটা কেউ নেবে না। সুতরাং যত খুশি টুইটার করতে পারেন। তাছাড়া এর মাধ্যমে রিপাবলিকান পার্টির ওপর ছড়ি ঘোরানোর চর্চাটাও চালিয়ে যেতে পারেন।

গত কয়েকদিন সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম আর গণমাধ্যম থেকে খানিকটা দূরে থাকলেও ফের সক্রিয় হচ্ছেন তিনি। অথবা মুভি দেখা কিংবা প্রবীণ বন্ধুদের সঙ্গে গল্প করেও কাটাতে পারেন সময়। যেমনটা ইতোমধ্যে পরামর্শ দিয়েছেন সুইডেনের কিশোরী পরিবেশ আন্দোলন কর্মী গ্রেটা থানবার্গ।

মুখ খুলবেন না মেলানিয়া : প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনকে অভিনন্দন জানাবেন না বিদায়ী ফার্স্টলেডি মেলানিয়া ট্রাম্প। আবার নির্বাচন নিয়ে ট্রাম্পের করা মামলার প্রসঙ্গেও কিছু বলবেন না। নীরব থাকার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তিনি। হোয়াইট হাউস সূত্র সিএনএনকে জানিয়েছে, হোয়াইট হাউসেই অবস্থান করছেন মেলানিয়া।

মেলানিয়ার সাবেক সহকারীদের বরাত দিয়ে ডেইলি মেইল জানিয়েছে, ট্রাম্পের সঙ্গে মেলানিয়ার সম্পর্কের ফাটল আরও প্রকট আকার নিয়েছে। এমনকি রীতিমতো ডিভোর্সের সিদ্ধান্ত নেয়ার দিনক্ষণ গণনা করছেন তিনি। হোয়াইট হাউস ছেড়ে যাওয়ার পর তাদের ১৫ বছরের দাম্পত্য জীবনের ইতি ঘটলেও ঘটতে পারে।

মেলানিয়ার সাবেক সহকারী স্টেফানি ওলকফ দাবি করেছেন এখন ফার্স্টলেডি ডিভোর্স হলে সম্পত্তি ও দেনাপাওনা নিয়ে পর্যন্ত প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের সঙ্গে আলোচনা সেরে রেখেছেন। মেলানিয়ার এক বন্ধু জানান, ফার্স্টলেডি কখনও চাননি ট্রাম্প নির্বাচনে জয়লাভ করুক। এখন নির্বাচনে হারার পর কি ট্রাম্প মেলানিয়াকেও হারাতে যাচ্ছেন।

শেয়ার করে সঙ্গে থাকুন, আপনার অশুভ মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়। আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক গণঅধিকার'কে জানাতে ই-মেইল করুন- dailyganoadhikar@gmail.com আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।

দৈনিক গণঅধিকার'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

© ২০২১ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। দৈনিক গণঅধিকার | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বে-আইনি, ডেভোলপ ও ডিজাইন: DONET IT