ঢাকা, বুধবার ২৮ জুলাই ২০২১, ১৩ই শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

পিআইডি এর নিয়ম অনুসারে আবেদিত

জিম্বাবুয়েকে ধবলধোলাই করেও সন্তুষ্ট নন তামিম

প্রকাশিত : 10:30 PM, 21 July 2021 Wednesday

গণঅধিকার নিউজ ডেস্কঃ

জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে মনে রাখার মতো একটি সিরিজ খেললেন তামিম ইকবাল। ব্যাটসম্যান ও অধিনায়ক দুই ভূমিকাতেই সফল এই বাঁহাতি ওপেনার। হাঁটুর চোটে ছয় সপ্তাহের জন্য মাঠ থেকে দূরে যাওয়ার আগে পেলেন দারুণ এক সেঞ্চুরিও। তবে সবকিছুর ঊর্ধ্বে দলের জন্য অবদান রাখতে পেরে খুশি তামিম। অবশ্য এটুকুতেও পুরোপুরি সন্তুষ্ট নন ওয়ানডে অধিনায়ক, মনে করেন তাঁর দল আরও ভালো করতে পারত।

শেষ ম্যাচে জিম্বাবুয়ের দেওয়া বড় লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে সামনে থেকে নেতৃত্ব দিয়েছেন তামিম। দলের জয়ের ভিত্তিও তৈরি হয়েছে তাঁর ব্যাটে। এই অবস্থায় ব্যাট করা কতটা চ্যালেঞ্জিং ছিল জানতে চাইলে তামিম বলেন, ‘চ্যালেঞ্জিং না। আমার কাছে মনে হয় যে, আমি ভালো রিদমে ছিলাম। টেস্ট ম্যাচ, ওডিআই যখনই ব্যাটিং করছিলাম ব্যাটিংটা ভালো ছিল কিন্তু ওভাবে রান করতে পারছিলাম না। এটা ভালো যে এ রকম ম্যাচে অবদান দেখতে পেরেছি। আমি খুশি।’

লম্বা সময় পর অলরাউন্ড নৈপুণ্য দেখিয়ে দেশের বাইরে সিরিজ জিতল বাংলাদেশ। এমন জয়ের পর কতটা সন্তুষ্ট, এমন প্রশ্নে তামিমের উত্তর, ‘সিরিজ জেতায় অবশ্যই খুশি। তবে আমার কাছে মনে হয় যে আমরা দল হিসেবে আরও ভালো ক্রিকেট খেলতে পারি। বিশ্বকাপের আগে দশ-বারোটা ম্যাচ আছে এই ম্যাচগুলো খুব গুরুত্বপূর্ণ। কারণ, বিশ্বকাপে আমাদের একটা পূর্ণ দল হিসেবে যেতে হবে।’

বারবার ব্যর্থ হয়েও দলে সুযোগ পাচ্ছেন মোহাম্মদ মিঠুন। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমেও প্রশ্ন উঠেছে মিঠুনের দলে জায়গা পাওয়া নিয়ে। একই প্রশ্ন শুনতে হলো তামিমকেও। বাংলাদেশ অধিনায়ক অবশ্য মনে করেন সবাইকে সুযোগ দেওয়া উচিত, ‘আমার কাছে মনে হয় যে সবাইকে সুযোগ দেওয়া উচিত। মোহাম্মদ মিঠুন সম্ভবত শেষ দুই তিনটা ম্যাচে খুব একটা বেশি ভালো করতে পারেনি। যদি নিউজিল্যান্ডের কথা মনে করেন, যেখানে একটা ম্যাচ আমাদের জেতা উচিত ছিল যদিও পারিনি। সেখানে কিন্তু তার অবদান ছিল। ৫–৬ নম্বর পজিশনে উপযুক্ত কাউকে এখনো পায়নি। আমার চেষ্টা করছি তাদের সুযোগ দেওয়ার জন্য। আজকে দেখেন সোহানের ইনিংসটা দেখার মতো ছিল। দু তিনজন আছে যারা এই পজিশনের জন্য লড়াই করছে।’

দুই মাসের জন্য মাঠ থেকে ছিটকে গেলেন তামিম। যদিও জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে শেষ ম্যাচে তাঁর ব্যাটিং দেখে মনে হলো না কোনো চোটে আছেন। নিজের চোট নিয়ে তামিম বলেন, ‘আমাকে দেখে হয়তো মনে হচ্ছিল না, কিন্তু খুব ব্যথা হচ্ছিল। অনেক টেপ পায়ে লাগানো ছিল। ইনজুরিটা একটা এমন জিনিস যে, এটা নিয়ে আমি হয়তো খেলে যেতে পারব কিন্তু এটা যদি বেড়ে যায় তখন আমাকে সাত-আট মাসের জন্য মাঠের বাইরে চলে যেতে হবে। আমার মনে হয় না যে ওই ঝুঁকি নিয়ে নামার দরকার আছে। আমি ৭–৮ সপ্তাহ বিশ্রাম নিতে পারি সেটা ভালো হবে।’

শেয়ার করে সঙ্গে থাকুন, আপনার অশুভ মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়। আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক গণঅধিকার'কে জানাতে ই-মেইল করুন- dailyganoadhikar@gmail.com আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।

দৈনিক গণঅধিকার'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

© ২০২১ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। দৈনিক গণঅধিকার | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বে-আইনি, ডেভোলপ ও ডিজাইন: DONET IT