ঢাকা, বৃহস্পতিবার ১৩ মে ২০২১, ৩০শে বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

পিআইডি এর নিয়ম অনুসারে আবেদিত

জাবি’র ভর্তি পরীক্ষার বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত ১৮ মে

প্রকাশিত : 08:52 PM, 2 May 2021 Sunday

গণঅধিকার নিউজ ডেস্কঃ

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষের স্নাতক (সম্মান) প্রথম বর্ষের ভর্তি পরীক্ষার বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত আসবে আগামী ১৮ মে। শনিবার (০১ মে) বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় ভর্তি পরীক্ষা পরিচালনা কমিটির এক জরুরি সভায় এই বিষয়ে আলোচনা হয়। মিটিংয়ে ভর্তি পরীক্ষার বিষয়ে কোনো চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়নি। ভর্তি পরীক্ষা কমিটির সদস্যরা তাদের সিদ্ধান্ত পুনর্বিবেচনা করে ১৮ মে সভায় জানালে ভর্তি পরীক্ষার বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত রেজিস্ট্রার রহিমা কানিজ জনকণ্ঠকে তথ্যটি নিশ্চিত করেছেন।

গত ২৯ এপ্রিল বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় ভর্তি পরীক্ষা পরিচালনা কমিটির ৫ম বৈঠকে এ, বি, সি, ডি ও ই ইউনিটে ভর্তি পরীক্ষার আবেদন ফি ১১০০ টাকা ও ইনিস্টিটিউট গুলোতে ভর্তি পরীক্ষার আবেদন ফি ৭০০ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে বলে জানা যায়। এছাড়া ভর্তি পরীক্ষার আবেদন দুই ধাপে নেয়ার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। প্রথম ধাপে ৫৫ টাকা দিয়ে শিক্ষার্থীদেরকে আবেদন করতে হবে। তারপর মাধ্যমিক এবং উচ্চ মাধ্যমিক বা সমমান পরীক্ষার ফলাফলের ভিত্তিতে বাছাই করে নির্দিষ্ট সংখ্যক শিক্ষার্থীকে পরীক্ষা দেয়ার সুযোগ দেয়ার কথা বলা হয়। গণমাধ্যমে বিষয়টি উঠে আসলে শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা এর সমালোচনা করেন।

ভারপ্রাপ্ত রেজিস্ট্রার রহিমা কানিজ জানান, ফি বৃদ্ধি এবং বাছাইকরণ প্রক্রিয়াতে ভর্তি পরীক্ষার বিষয়ে গত সভাতে আলোচনা হয়েছিলো কিন্তু সিদ্ধান্তটি চূড়ান্ত ছিলোনা। আগামী বৈঠকে কমটির সদস্যদের মাতামতের ভিত্তিতে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেয়া হবে।

সিদ্ধান্ত পুনর্বিবেচনার ক্ষেত্রে বাছাইকরণ প্রক্রিয়া থেকে সরে এসে আগের পদ্ধতিতেই ভর্তি পরীক্ষা হতে পারে বলে জানিয়েছেন কেন্দ্রীয় ভর্তি পরীক্ষা পরিচালনা কমিটির একাধিক সদস্য।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে ভর্তি পরীক্ষা পরিচালনা কমিটির একজন সদস্য বলেন, ‘এই বছরও বিগতবছরের পদ্ধতিতেই ভর্তি পরীক্ষা আয়োজন করার বিষয়ে অধিকাংশ সদস্য মত দিয়েছেন। স্বাস্থ্যঝুঁকির কথা চিন্তা করেই মূলত বাছাইকরণ প্রক্রিয়ার দিকে যাওয়ার বিষয়ে ভর্তি পরীক্ষা কমিটির সদস্যরা মতামত দিয়েছিলেন। করোনার বর্তমান অবস্থার প্রেক্ষিতে সরকারের সিদ্ধান্তের উপরও নির্ভর করতে হবে। তবে আজকের মিটিংয়ে আলোচনা হয়েছে পূর্বের পদ্ধতিতে পরীক্ষা নিলে কি সুবিধা-অসুবিধা হবে সে বিষয়ে। চূড়ান্ত সিদ্ধান্তটা পরবর্তী মিটিং থেকে জানা যাবে।’

এ বিষয়ে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. ফারজানা ইসলাম জানান, ৫ তারিখে উপাচার্যদের মিটিং আছে এবং ৬ তারিখে উপাচার্যদের সাথে ইউজিসির মিটিং আছে। একারণে ভর্তি পরীক্ষার বিষয়ে আমরা এখনো চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নিচ্ছিনা। ১৮ই মে আমরা বিস্তারিতভাবে চূড়ান্ত সিদ্ধান্তটি জানাবো।

শেয়ার করে সঙ্গে থাকুন, আপনার অশুভ মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়। আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক গণঅধিকার'কে জানাতে ই-মেইল করুন- dailyganoadhikar@gmail.com আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।

দৈনিক গণঅধিকার'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

© ২০২১ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। দৈনিক গণঅধিকার | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বে-আইনি, ডেভোলপ ও ডিজাইন: DONET IT