শুক্রবার ২১ জানুয়ারি ২০২২, ৮ই মাঘ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

শিরোনাম
◈ ব্যাংকারদের সর্বনিম্ন বেতন বেঁধে দিল কেন্দ্রীয় ব্যাংক, ১ মার্চ থেকে কার্যকর ◈ জমির ক্ষেত্রে পাওয়ার অব অ্যাটর্নি বন্ধ হচ্ছে ◈ মারধর করে যুবককে মেরে ফেলল বনভোজনের যাত্রীরা ◈ করোনায় শনাক্ত ১০ হাজার ছাড়াল ◈ এমন কোনো দেশ নাই যেখানে এনকাউন্টার ঘটে না: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ◈ শাবিতে অনশনরত দুইজন হাসপাতালে, চিকিৎসায় মেডিকেল টিম ◈ ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা হলেই সাংবাদিককে গ্রেফতার নয়, ডিসিদের আইনমন্ত্রী ◈ পুলিশ সার্জেন্ট টাকা চাননি, ক্ষমা চেয়েছেন সেই চীনা নাগরিক ◈ অসহিষ্ণুতায় অনেক ছোট ঘটনা বড় রূপ পায় ◈ চালের কৃত্রিম সংকট অসাধু ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে দ্রুত ব্যবস্থা নিন

খেজুরের পুষ্টিগুণ

প্রকাশিত : 09:02 AM, 23 April 2021 Friday

গণঅধিকার নিউজ ডেস্কঃ

আজকাল ছোট-বড় সবারই পেট জ্বালাপোড়া বা গ্যাষ্ট্রিকের সমস্যার কথা শোনা যায়। গ্যাষ্ট্রিকের সমস্যা যে কত যন্ত্রণাদায়ক তা কেবল যাঁরা ভোগেন তাঁরাই ভালো বলতে পারবেন। অনেকেই এই সমস্যা থেকে মুক্তি পাওয়ার জন্য ওষুধ খাচ্ছেন, ডাক্তার দেখাচ্ছেন। একটু ভাজা পোড়া অথবা ইফতার পার্টিতে মশলাযুক্ত খাবার বা ফাস্টফুড খেলে তো শুরু হয়ে যায় অস্বস্তি। আর তাই, ব্যস্ত জীবনযাত্রার যুগে গ্যাষ্ট্রিক, পেটের অসুখ এখন ঘরোয়া রোগ হয়ে দাঁড়িয়েছে।

খেজুরের পুষ্টিগুণ- সুস্বাদু আর বেশ পরিচিত একটি ফল যা ফ্রুকটোজ এবং গ্লাইসেমিক সমৃদ্ধ। এটা রক্তে শর্করার পরিমাণ বাড়ায়। খেজুর ফলকে চিনির বিকল্প হিসেবে ধরা হয়ে থাকে। খেজুরের পুষ্টি উপাদন সম্পর্কে বলা হয়- চারটি বা ৩০ গ্রাম পরিমাণ খেজুরে আছে ৯০ ক্যালোরি, এক গ্রাম প্রোটিন, ১.৩ মি গ্রাম ক্যালশিয়াম, ২.৮ গ্রাম ফাইবার এবং আরও অন্যান্য পুষ্টি উপাদান। খেজুর শক্তির একটি ভালো উৎস। তাই খেজুর খাওয়ার সঙ্গে সঙ্গেই শরীরের ক্লান্তিভাব দূর হয়। আছে প্রচুর ভিটামিন বি, ভিটামিন বি ৬ যা মস্তিষ্কের কার্যক্ষমতা বৃদ্ধিতে সহায়ক। আপনি জেনে খুশি হবেন যে প্রতিদিন মাত্র তিনটি খেজুর আপনার গ্যাষ্ট্রিকের সমস্যা দূর করবে।

প্রতিদিন তিনটি খেজুর খান এক সপ্তাহ। তবে এক সপ্তাহ খাওয়ার পর খেজুর খাওয়া বন্ধ করবেন না। এটা অভ্যাসে পরিণত করুন। একবার যখন আপনি অভ্যাসে পরিণত করতে পারবেন তখন ভালো ফল পাবেন। অর্থাৎ আপনার গ্যাষ্ট্রিকের সমস্যা থেকে মুক্তি মিলবে। আপনি তিনটি খেজুর টানা সাতদিন খান। এই সাত দিনের মধ্যে একদিনও খেজুর খাওয়া বন্ধ করবেন না। টানা সাতদিন খেজুর খাওয়ার পর আপনার গ্যাষ্ট্রিকের সমস্যা বিদায় নিবে। এই রমজানেই এটা অভ্যাস করার ভাল সময়।

খেজুর যে শুধু গ্যাষ্ট্রিকের সমস্যার সমাধান করবে তা নয়। খেজুরে রয়েছে আরও গুণ। খেজুর খেলে রোগ প্রতিরোধের ক্ষমতা বাড়ে, খাবারের রুচি বৃদ্ধি পায় ও হজম ক্ষমতাও বাড়াবে। এ ছাড়া, যেকোন ধরনের রোগে খেজুর একটি ভাল ওষুধ।

অন্ত্রের ক্ষতিকর ব্যাকটেরিয়ার বিরুদ্ধে যুদ্ধে দারুণভাবে কাজ করে খেজুর। এটি কোলন ক্যান্সারের ঝুঁকিও কমায়। খাদ্য ও পুষ্টি বিভাগের এক গবেষণা থেকে জানা যায়, খেজুর খেলে কোলন ভালো থাকে। খেজুর উপকারী ব্যাকটেরিয়ার সংখ্যা বৃদ্ধিতে সহায়ক। তাই ব্যাকটেরিয়াগুলো কোলন ক্যান্সারের জন্য দায়ী কোষগুলোকে ধ্বংস করে। এজন্য নিয়মিত খেজুর খান।

শেয়ার করে সঙ্গে থাকুন, আপনার অশুভ মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়। আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক গণঅধিকার'কে জানাতে ই-মেইল করুন- dailyganoadhikar@gmail.com আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।

দৈনিক গণঅধিকার'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

© ২০২২ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। দৈনিক গণঅধিকার | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বে-আইনি, ডেভোলপ ও ডিজাইন: DONET IT