মঙ্গলবার ০৭ ডিসেম্বর ২০২১, ২৩শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

পিআইডি এর নিয়ম অনুসারে আবেদিত

ক্ষমা চাইলেন বহিষ্কৃত জকোভিচ

প্রকাশিত : 02:15 PM, 9 September 2020 Wednesday

গণঅধিকার নিউজ ডেস্কঃ

দারুণ একটা ছন্দেই ছিলেন নোভাক জকোভিচ। কিন্তু শেষ ষোলয় খেলতে গিয়ে মাথা গরম করে লাইন জাজের গায়ে বল মেরে ইউএস ওপেন থেকেই বহিষ্কৃত হলেন বিশ্বের এক নম্বর টেনিস খেলোয়াড়টি। যদিও পরবর্তীতে নিজের অসদাচরণের জন্য ক্ষমা চেয়েছেন।

জকোভিচ এ বছর করোনাসৃষ্ট বিরতির আগে পরে ২৬টি ম্যাচ খেলে হারেননি একটিতেও। মাঝে জিতেছেন অস্ট্রেলিয়ান ওপেনসহ আরো চারটি শিরোপা। তবে এমন ফর্মের বিপরীত প্রতিচ্ছবি ছিল মাঠের বাইরে।

মাসচারেক আগে করোনা মহামারির সময়ে আড্রিয়া ট্যুর আয়োজন করে নিন্দিত হয়েছিলেন, নিজেও আক্রান্ত হয়েছিলেন করোনায়। এরও আগে, গেলো মার্চে আরো একবার তোপের মুখে পড়েছিলেন ফেসবুক লাইভে এসে ভ্যাকসিন-বিরোধী মন্তব্য করে। ইউএস ওপেনে আসার আগেই খেলোয়াড়দের সংগঠন এটিপি থেকে বেরিয়ে এসে টেনিস প্লেয়ার্স অ্যাসোসিয়েশন গড়েন। খোদ রজার ফেদেরার, রাফা নাদালের মতো খেলোয়াড়রা এর সমালোচনা করেন।

এখানেই শেষ নয়, ১৭ গ্র্যান্ডস্ল্যাম জয়ী এই সার্বিয় ইউএস ওপেন শুরুর আগে প্রতিযোগিতাটির জৈব-নিরাপত্তা বলয়ের সমালোচনা করে সমালোচিত হয়েছিলেন। এসবই যেন যথেষ্ঠ নয়, তাই আগুনে ঘি ঢাললেন লাইন জাজকে বল দিয়ে আঘাত করে।

বাংলাদেশ সময় গতকাল সোমবার সকালে চতুর্থ রাউন্ডের প্রথম সেটে স্প্যানিশ পাবলো ক্যারেনো বুস্তার বিপক্ষে ৬-৫ এ পিছিয়ে পড়ার পরই স্নায়ুর উত্তেজনায় ভোগেন জকোভিচ। গেমটা হেরেই রাগান্বিত জকোভিচ পকেটে থাকা অতিরিক্ত বলটা র্যাকেটের আঘাতে ছুড়ে মারেন কোর্টের বাইরে। সেটি সরাসরি আঘাত করে সেখানে থাকা লাইন জাজকে। চেয়ার আম্পায়ারের রায় অনুযায়ী বহিষ্কৃত হন জকোভিচ।

জকোভিচের এমন আচরণ অবশ্য নতুন কিছু নয়। ২০১৬ ফ্রেঞ্চ ওপেনেও রাগের বশে একই কাজ করতে গিয়ে র্যাকেট ছুটে গিয়েছিল তার হাত থেকে। সে যাত্রায় লাইন জাজ তড়িত্গতিতে সরে যাওয়ায় নিস্তার মেলে জকোভিচের। কিন্তু এবার আর তা হয়নি।

এর ফলে চতুর্থ রাউন্ডে খেলার প্রাইজমানি আড়াই লাখ ডলারসহ টুর্নামেন্ট থেকে প্রাপ্ত সব রেটিং পয়েন্ট হারিয়েছেন জকোভিচ।

তাতে ২০১৬ ইউএস ওপেনের পর প্রথমবারের মতো ফেদেরার, নাদাল ও জকোভিচের বাইরে কোনো শিরোপাজয়ী পাবে টেনিস বিশ্ব। আর ইউএস ওপেন নতুন চ্যাম্পিয়ন পেতে যাচ্ছে ২০১৪ সালের পর এই প্রথম।

বহিষ্কারাদেশের প্রতিক্রিয়ায় জকোভিচ বলেন, ‘পুরো প্রতিক্রিয়াটা আমাকে বেশ দুঃখ আর শূন্যতা দিয়ে গেছে। আমি লাইন জাজের খবর নিয়েছি আর টুর্নামেন্ট কর্তৃপক্ষ আমাকে জানিয়েছে, স্রষ্টাকে ধন্যবাদ তিনি ঠিক আছেন। আমি খুবই দুঃখিত তাকে এমন চাপে ফেলার জন্যে, ইচ্ছে করে করিনি আমি, এটা ভুল হয়েছে অবশ্যই।’

শেয়ার করে সঙ্গে থাকুন, আপনার অশুভ মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়। আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক গণঅধিকার'কে জানাতে ই-মেইল করুন- dailyganoadhikar@gmail.com আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।

দৈনিক গণঅধিকার'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

© ২০২১ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। দৈনিক গণঅধিকার | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বে-আইনি, ডেভোলপ ও ডিজাইন: DONET IT