ঢাকা, মঙ্গলবার ২১ সেপ্টেম্বর ২০২১, ৬ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

পিআইডি এর নিয়ম অনুসারে আবেদিত

আল্লাহর মাগফিরাত পেতে যা বর্জন করতে হবে

প্রকাশিত : 01:34 AM, 26 October 2020 Monday

গণঅধিকার নিউজ ডেস্কঃ

আমরা বড়দের মন পেতে যেভাবে তাদের কথামতো চলি, তাদের পছন্দনীয় কাজ বেশি বেশি করি এবং তাদের অপছন্দনীয় কাজ থেকে দূরে থাকি; ঠিক তেমনই আল্লাহর রহমত পেতে তার পছন্দের কাজ করতে হয় এবং তার মাগফিরাতের জন্য বর্জন করতে হয় তারই অপছন্দের কাজ।

অপরাধ চালিয়ে যাব আর বলব মুসলমান আমরা। আল্লাহ আমাদের ক্ষমা করবেন না তো কাদের করবেন? এমনটি ভেবে নিশ্চিত হয়ে বসে থাকার কোনো সুযোগ নেই।

মাগফিরাতের দিনগুলোতে দয়াময় মালিকের ক্ষমা পেতে হলে অবশ্যই তার অপছন্দনীয় কাজ থেকে বিরত থাকতে হবে।

পবিত্র কোরআনুল কারিমে আল্লাহতায়ালা একাধিকবার বলেছেন যে, তিনি জুলুম পছন্দ করেন না। তিনি কারও ওপর জুলুম করেন না। তা হলে তিনি জুলুম করা কীভাবে পছন্দ করবেন? প্রশ্নই ওঠে না।

সুতরাং আমি আপনি আল্লাহর অপছন্দনীয় কাজ করে কোন আশায় তার মাগফিরাত কামনা করি!

কাউকে অন্যায়ভাবে মারা, জোর জবরদস্তি করা, কারও জায়গাজমি জবরদখল করার নাম-ই কি শুধু জুলুম? না। আরবিতে জুলুমের একটি বহুল প্রচলিত প্রবাদ আছে– ‘কোনো বস্তুকে তার যথোপযুক্ত স্থানে না রেখে অপাত্রে রাখাই জুলুম’।

ক্ষমতাবান যদি তার ক্ষমতার সঠিক প্রয়োগ না করে, তা হলে সে জালিম। শিক্ষক যদি তার শিক্ষার সঠিক ব্যবহার না করে, তা হলে সে শিক্ষক জুলুমবাজ।

যে আলেম তার ইলমকে সঠিক স্থানে প্রয়োগ না করে, সে অত্যাচারী। যে স্বামী তার স্ত্রীর হক্ব আদায় করে না, সে জালিম স্বামী। যে সন্তান তার পিতামাতার হক্ব আদায় করে না বা যে পিতামাতা তার সন্তানের হক্ব আদায় করে না তারাও জালিম।

যে ব্যবসায়ী তার ক্রেতাকে ঠকায়, সে ব্যবসায়ীও জুলুমের দোষে দোষী। যে বিচারক সঠিক বিচার করে না, সেও জালিম। যে ডাক্তার তার রোগীর সঠিক চিকিৎসা করে না, সেও এ কাতারের লোক।

এভাবে আপনি গোটা সমাজকে সামনে আনুন। ব্যস ক্যালকুলেশন হয়ে যাবে আমরা কারা জালিম আর কারা জালিম না।

যদি সমাজ, দেশ জুলুমবাজে ভরা থাকে, তা হলে বলুন আল্লাহর রহমতের আশা কীভাবে করি! তার পরও আল্লাহ তো আল্লাহ। হাজার দোষে দোষী তাতে কী, মালিকের কাছে খাটি অন্তরে দুই ফোঁটা অশ্রু বিসর্জন দিয়ে তওবা করলেই তিনি মাফ করে দেন।

আবার কান্নার সময়টা যদি হয় রমজানের মাগফিরাতের দিবানিশি তা হলে তো কথাই নেই।

সুতরাং আমরা যে যেই স্তরের জালিম, সেই স্তর থেকে সত্য দিলে তওবা করে ফিরে আসি। আশা করা যায় মাফ পেয়ে যাব। অন্যথায় আমার-আপনার জুলুম কিন্তু আল্লাহর মাগফিরাত আটকে দেয়ার জন্য যথেষ্ট।

শেয়ার করে সঙ্গে থাকুন, আপনার অশুভ মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়। আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক গণঅধিকার'কে জানাতে ই-মেইল করুন- dailyganoadhikar@gmail.com আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।

দৈনিক গণঅধিকার'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

© ২০২১ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। দৈনিক গণঅধিকার | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বে-আইনি, ডেভোলপ ও ডিজাইন: DONET IT